মেসিই পাচ্ছেন ৬ নম্বর গোল্ডেন বুট

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ | ২ আষাঢ় ১৪২৬

মেসিই পাচ্ছেন ৬ নম্বর গোল্ডেন বুট

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৫২ অপরাহ্ণ, মে ২৫, ২০১৯

মেসিই পাচ্ছেন ৬ নম্বর গোল্ডেন বুট

না, কিলিয়ান এমবাপে পারলেন না অসম্ভবকে সম্ভব করে লিওনেল মেসির হাত থেকে ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটটা কেড়ে নিতে। রেকর্ড ষষ্ঠ বারের মতো মর্যাদার এই পুরস্কারটা পাচ্ছেন মেসিই। মেসি এবং তার ভক্তদের এখন শুধু অপেক্ষা, আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কারটা হাতে পাওয়ার।

আকর্ষণীয় এই পুরস্কারের দৌড়ে একমাত্র এমবাপেই মেসির প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন। তবে মেসিকে হতাশ করতে হলে গতকাল শুক্রবার লিগের শেষ ম্যাচটিতে কিলিয়ান এমবাপেকে করতে হতো ৫ গোল। কিন্তু কারল রেঁসের বিপক্ষে পিএসজির ৩-১ গোলে হেরে যাওয়া ম্যাচে এমবাপে করতে পেরেছেন মাত্র একটি। ফলে পিএসজির ফরাসি তারকার চেয়ে ৩ গোলে এগিয়ে থেকেই ৬ নম্বর সোনার জুতাটা নিশ্চিত করে ফেললেন মেসি।

মেসি মৌসুম শেষ করেছেন লিগে ৩৬ গোল করে। গতকালের ১ গোল নিয়ে এমবাপে লিগ শেষ করলেন ৩৩ গোল করে। ফলে সর্বোচ্চ ৭২ পয়েন্ট অর্জনের মাধ্যমে মেসিই গড়ে ফেললেন নতুন রেকর্ড। বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা পঞ্চম গোল্ডেন বুট জেতার মধ্য দিয়ে গত মৌসুমেই রেকর্ড গড়ে ফেলেন। ইতিহাসে আর কোনো খেলোয়াড়ই এই পুরস্কারটা ৫ বার জিততে পারেননি। সেখানে মেসি জিতলেন ষষ্ঠবার। মানে নিজেই নিজেকে ছাপিয়ে গিয়ে রেকর্ডটাকে টেনে তুললেন আরও উচ্চতায়।

পুরস্কারটা না পেলেও অন্য একটা তৃপ্তি আছে ফরাসি তরুণ এমবাপের। মেসি লিগে ৩৬ গোল করেছেন ৩৩ ম্যাচে। ম্যাচপ্রতি তার গোল সংখ্যা ১.০৯টি। সেখানে ২০ বছর বয়সী এমবাপে ৩৩ গোল করেছেন মাত্র ২৯ ম্যাচেই। ম্যাচপ্রতি তার গোল গড় ১.১৪। মানে মেসির চেয়ে এখানে এগিয়ে তিনিই।

এ নিয়ে টানা তৃতীয় বারের মতো এই পুরস্কার জিতলেন মেসি। সব মিলে টানা ১১ বারের মতো এই পুরস্কারটা উঠল স্পেনের লা লিগার খেলোয়াড়দের হাতে। লা লিগার বাইরে সর্বশেষ এই পুরস্কারটা জিতিয়েছিলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, সেই ২০০৭/০৮ মৌসুমে, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে।

এর পর থেকে এই পুরস্কারটা নিজেদের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেছেন লা লিগার খেলোয়াড়েরা। এর মধ্যে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোও রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে জিতেছেন আরও ৩ বার। ৬ বার মেসি। মেসির বার্সেলোনা সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ জিতেছেন ২ বার।

ফুটবলবোদ্ধাদের অভিমত, ষষ্ঠ গোল্ডেন বুট জেতার মাধ্যমে কিংবদন্তির তালিকায় আরেক ধাপ উঁচুতে উঠলেন মেসি।

কেআর/আরপি