গুরু অপরাধে লঘু শাস্তিই পেলেন নেইমার

ঢাকা, রবিবার, ১৯ মে ২০১৯ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গুরু অপরাধে লঘু শাস্তিই পেলেন নেইমার

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:০৭ অপরাহ্ণ, মে ১০, ২০১৯

গুরু অপরাধে লঘু শাস্তিই পেলেন নেইমার

অপরাধ গুরুতর। রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে প্রতিপক্ষ সমর্থককে ঘুষি মেরেছেন বা ঘুষি মারতে তেড়ে গেছেন।

ধারণা করা হচ্ছিল, অপরাধের মাত্রা বিবেচনায় বড় শাস্তিই পাবেন নেইমার। ফরাসি গণমাধ্যম বলাবলি করছিল, অন্তত ৮ থেকে ১২ ম্যাচ নিষিদ্ধ হতে পারেন পিএসজির ব্রাজিলিয়ান তারকা। কিন্তু, বাস্তবে ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন (এফএফএফ) অতটা কঠিন শাস্তি দেয়নি। দয়াবশত হয়ে নেইমারকে মাত্র ৩ ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করেছে।

সঙ্গে বাড়তি দুই ম্যাচের স্থগিত নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। ভবিষ্যতে একই অপরাধ করলে বাড়তি ওই দুই ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা তাকে কাটাতে হবে। গত মাসে রেনের বিপক্ষে ফ্রেঞ্চ কাপের ফাইনালে ওই অপ্রীতিকর ঘটনাটা ঘটিয়ে বসেন নেইমার।

ম্যাচে নেইমারদের পিএসজিকে টাইব্রেকারে হারিয়ে ফ্রেঞ্চ কাপের শিরোপা জিতে নেয় রেনে। পুঁচকে রেনের কাছে হেরে শিরোপা স্বপ্নভঙ্গ হওয়ায় এমনিতেই প্রচণ্ড হতাশ ছিলেন নেইমার। তারপরও পুরস্কার নিতে যাওয়ার সময় গ্যালারির দর্শকদের তাকে উদ্দেশ্য করে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করছিল। এমনকি মোবাইলে নেইমারকে ভিডিও করছিল এক দর্শক।

বিষয়টি মোটেই ভালো লাগেনি নেইমারের। ফলে মেজাজ হারিয়ে ওই দর্শকদের সঙ্গে বাগ-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ে মেজাজ আরও সপ্তমে উঠে যাওয়ায় মোবাইলে ভিডিও ধারণাকারী ওই দর্শককে ঘুরি মারতে তেড়ে যান নেইমার। কারও কারও দাবি, নেইমার ঘুষি মেরেছেনও।

তা ঘুষি মারুন বা মারার জন্য তেড়ে যান, দুটোই সমান অপরাধ! খেলোয়াড়ি চেতনার সঙ্গে যায় না। এই অনভিপ্রেত ঘটনার জন্য তাকে সমালোচনাও সইতে হয়েছে অনেক। তবে ‘তারকা’ হিসেবে ব্রাজিল তারকাকে এফএফএফ দয়াটা ঠিকই দেখিয়েছে।

কেআর/আইএম