পরিসংখ্যানে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অল-ইংল্যান্ড ফাইনাল

ঢাকা, ১৫ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

পরিসংখ্যানে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অল-ইংল্যান্ড ফাইনাল

পরিবর্তন ডেস্ক ২:৫০ অপরাহ্ণ, মে ০৯, ২০১৯

পরিসংখ্যানে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অল-ইংল্যান্ড ফাইনাল

পরপর দুই রাতে প্রত্যাবর্তনের অবিশ্বাস্য গল্প রচিত হলো উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে। প্রথম লেগে ৩-০ গোলে পিছিয়ে থাকার পরও মঙ্গলবার নিজেদের মাঠে লিভারপুল বার্সেলোনাকে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করে উঠেছে ফাইনালে। বুধবার রাতেও প্রায় একই রকম রূপকথার গল্প লিখেছে টটেনহাম।

নিজেদের মাঠের প্রথম লেগে ১-০ গোলে হারা টটেনহাম কাল আয়াক্সের মাঠের ফিরতি লেগেও প্রথমার্ধে পিছিয়ে পড়ে ২-০ গোলে। মানে বিরতির সময়ও ৩-০ গোলে পিছিয়ে ছিল টটেনহাম। দ্বিতীয়ার্ধে ৩ গোল করে সেই টটেনহামই ইতিহাসে প্রথমবারের মতো উঠে গেছে ফাইনালে। টটেনহামের এই রূপকথার নায়ক লুকাস মৌরা। ব্রাজিলিয়ান ইউঙ্গার অবিশ্বাস্য এক হ্যাটট্রিক করে টটেনহামকে এনে দিয়েছেন ফাইনাল নিশ্চিত করা ৩-২ গোলের অবিশ্বাস্য জয়।

যাই হোক, টানা দুই রাতে লিভারপুল-টটেনহামের এই কীর্তিতে এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালটি রূপ নিয়েছে ‘অল-ইংল্যান্ড ফাইনালে।’ মানে আগামী ১ জুন মাদ্রিদের ফাইনালে মুখোমুখি হবে দুই ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল ও টটেনহাম।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ‘অল-ইংল্যান্ড ফাইনাল’ হচ্ছে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এর আগে একবারই ‘অল-ইংল্যান্ড ফাইনাল’ হয়েছে। ২০০৮ সালের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও চেলসি। রাশিয়ার মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামের সেই ফাইনালে চেলসিকে টাইব্রেকারে ৬-৫ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

এ ছাড়া ইউরোপিয়ান টুর্নামেন্টে আরও একবার ‘অল-ইংল্যান্ড’ ফাইনাল হয়েছে। ১৯৭২ সালে উয়েফা কাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল এই টটেনহাম ও উলভারহাম্পটন। দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ ব্যবধানে জিতে সেবার শিরোপা উল্লাসও করেছিল টটেনহামই।

টটেনহাম চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠল এবারই প্রথম। এ নিয়ে বিশ্ব ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদা ও আকর্ষণীয় এই টুর্নামেন্টে ইংল্যান্ডের ৮টি ক্লাব ফাইনালে উঠার কৃতিত্ব দেখাল। ইউরোপের আর কোনো দেশের এত বেশি ক্লাব চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ওঠেনি। টটেনহামের আগে মর্যাদার এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলেছে লিভারপুল, আর্সেনাল, চেলসি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, অ্যাস্টন ভিলা, লিডস ইউনাইটেড ও নটিংহাম ফরেস্ট।

অল-ইংল্যান্ড ফাইনাল নিশ্চিত করার পথে টটেনহাম অন্য একটা কীর্তিও গড়েছে। নিজেদের মাঠে সেমি ফাইনালের প্রথম লেগে হারার পরও ফাইনালে ওঠা ইতিহাসে মাত্র দ্বিতীয় দল টটেনহাম। যে আয়াক্সকে হারিয়েছে এই কীর্তি গড়ল টটেনহাম, এর আগের একমাত্র কীর্তিটা সেই আয়াক্সেরই।

সেটি সেই ১৯৯৫-৯৫ মৌসুমে। গ্রিক ক্লাব পানাথিনাইকোসের কাছে নিজেদের মাঠে ১-০ গোলে হেরে যায় আয়াক্স। তবে পানাথিনাইকোসের মাঠের ফিরতি লেগে ৩-০ গোলে জিতে আয়াক্সই পা রাখে ফাইনালে। তবে ফাইনালে জুভেন্টাসের কাছে টাইব্রেকারে হেরে যায় ডাচ ক্লাবটি।

উল্লেখ্য, সেটিই হয়ে আছে আয়াক্সের সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল। এরপর এবারই প্রথম উঠেছিল সেমিতে। কিন্তু ফাইনালে উঠতে পারল না। উল্টো নাটকীয় হারে নিজেদের অনন্য কীর্তিতেই টটেনহামকে অংশীদার করল ডাচ ক্লাবটি।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও