লিঁওকে উড়িয়ে দিয়েই শেষ আটে বার্সেলোনা

ঢাকা, সোমবার, ২৭ মে ২০১৯ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

লিঁওকে উড়িয়ে দিয়েই শেষ আটে বার্সেলোনা

পরিবর্তন ডেস্ক ৮:৪৩ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯

লিঁওকে উড়িয়ে দিয়েই শেষ আটে বার্সেলোনা

স্পেনের অন্য তিন প্রতিনিধির মধ্যে ভ্যালেন্সিয়া চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে। মাদ্রিদের দুই জায়ান্ট রিয়াল ও অ্যাতলেতিকো বিদায় নিয়েছে শেষ ষোল থেকে। বার্সেলোনাও সেই পথে হাঁটে কি না, শঙ্কা ছিলই। কিন্তু যে দলটিতে একজন লিওনেল মেসি আছেন, তাদের আবার শঙ্কা কি! আগে যাই হোক, ম্যাচ শুরুর পর বার্সেলোনাকে আর শঙ্কায় পুড়তে হয়নি। বরং অলিম্পিক লিঁওকে বিধ্বস্ত করেই স্পেনের একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে বার্সেলোনা।

মেসি, কুতিনহো, পিকে, ডেম্বেলেদের কাঁধে চেপে কাল রাতে নিজেদের ঘরের মাঠের ফিরতি লেগে বার্সেলোনা জিতেছে ৫-১ গোলে। অধিনায়ক মেসি নিজে করেছেন জোড়া গোল। সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন দুটি। মেসির রাতে কুতিনহো, ডেম্বেলে ও পিকে করেছেন একটি করে গোল। লিঁর মাঠের প্রথম লেগটি গোলশূন্য ড্র ছিল। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-১ অগ্রগামিতা নিয়েই শেষ আটে বার্সা।

মাদ্রিদের দুই দৈত্য রিয়াল ও অ্যাতলেতিকো প্রথম লেগে জয়ের পরও দ্বিতীয় লেগে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়েছে। সেখানে বার্সেলোনা লিঁও’র মাঠ থেকে প্রথম লেগে গোলশূন্য ড্র করে ফিরেছিল বার্সেলোনা। ফলে ভয়টা একটু ছিলই। কিন্তু কাল ন্যু-ক্যাম্পে ম্যাচের ১৮ মিনিটেই সেই ভয় উধাও।

১৮ মিনিটেই বার্সেলোনাকে এগিয়ে দেন অধিনায়ক মেসি। পেনাল্টি থেকে পাওয়া এই গোলটা অবশ্য বার্সেলোনার ভাগ্য প্রসূত। কারণ পেনাল্টির সিদ্ধান্তটা ছিল বিতর্কিত। যার সুবাদে পেনাল্টিটা পেয়েছে বার্সেলোনা, সেই লুইস সুয়ারেজই বলেছেন, ঘটনাক্রমে মাটিতে পড়ে গেছেন তিনি। পেনাল্টিটা রেফারি না দিলেও পারতেন!

কিন্তু রেফারি ঠিকই পেনাল্টি দিয়েছেন। আর বিতর্কিত সেই পেনাল্টি থেকেই শঙ্কার মেঘ ফুঁড়ে গোলের দরজা খুলেন মেসি। এরপর ২ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফিলিপে কুতিনহো। চোট থেকে উসমানে ডেম্বেলে পুরোপুরি সেরে না উঠাতেই শুরুর একাদশে জায়গা হয় কুতিনহোর। ব্রাজিলিয়ান তারকা সুযোগটা কাজে লাগিয়েছেন দারুণভাবে। শেষ দিকে তার বদলি হিসেবে নেমে ডেম্বেলেও গোল করেছেন।

তবে তার আগেই বার্সেলোনা পেয়ে যায় আরও দুই গোল। মাঝের এই গোল দুটি করেছেন মেসি ও জেরার্ড পিকে। মেসি নিজের দ্বিতীয় গোলটা করেন মিনিটে। এর দুই মিনিট পরই বার্সেলোনাকে আবার উৎসবে ভাসান পিকে। ডেম্বেলে গোলটা করেছেন ৮৬ মিনিটে। লিঁও’র হয়ে সান্ত্বনার গোলটা করেছেন তুসার্ট।

দিনের অন্য ম্যাচে বায়ার্ন মিউনিখকে তাদের মাঠেই ৩-১ গোলে হারিয়ে শেষ আটে উঠেছে লিভারপুল।

কেআর/আরপি