জরুরি ভিত্তিতে একজন স্ট্রাইকার চান বার্সা কোচ

ঢাকা, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯ | ১০ চৈত্র ১৪২৫

জরুরি ভিত্তিতে একজন স্ট্রাইকার চান বার্সা কোচ

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:২৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯

জরুরি ভিত্তিতে একজন স্ট্রাইকার চান বার্সা কোচ

বার্সেলোনা নাকি নতুন খেলোয়াড় আর কিনবে না! অথচ গত কয়েক দিনের মধ্যেই তিন জনকে দলে ভিড়িয়েছে কাতালান জায়ান্টরা। এবার আরও একজনকে কিনতে মরিয়া। জরুরি ভিত্তিতে একজন স্ট্রাইকার কিনতে চাইছেন বার্সেলোনার কোচ আর্নেস্তা ভালভার্দে।

মৌসুমের মাঝপথে হুট করে বার্সা কোচের এই স্ট্রাইকার কেনার ক্ষুধাটা বাড়িয়ে দিয়েছেন মুনির আল হাদ্দাদি। দুইদিন আগে স্প্যানিশ এই স্ট্রাইকার বার্সেলোনা ছেড়ে যোগ দিয়েছেন সেভিয়ায়। তিনি চলে যাওয়ার পরপরই বার্সেলোনা কোচ প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়েছেন, একজন স্ট্রাইকার চাই তার। ক্লাব কর্তাদের জানিয়ে দিয়েছেন, দ্রুতই কিনতে হবে একজন স্ট্রাইকার।

অধিনায়ক লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজ, উসমান ডেম্বেলে, ফিলিপে কুতিনহো—বার্সেলোনার আক্রমণভাগ এখনো বিশ্বের অন্যতম সেরা। তারপরও কোচ ভালভার্দে স্ট্রাইকার কিনতে এমন মরিয়া কেন? মেসি, সুয়ারেজ, ডেম্বেলে, কুতিনহোদের কেউ একজন চোটে পড়লে বা বদলি হিসেবে নামার প্রয়োজন পড়লে কাকে নামাবেন বার্সা কোচ? ব্যাক আপ স্ট্রাইকার হিসেবে যিনি ছিলেন, সেই মুনির আল হাদ্দাদি চলে গেছেন।

ব্রাজিলিয়ান ম্যালকম, আর্থার মেলোরা আছেন বটে। তবে তারা মূলত মিড ফিল্ডার। কিন্তু বার্সা কোচ চান একজন নিখাদ স্ট্রাইকার। যার ওপর ভরসা করায় যায় এবং দলের প্রয়োজনের সময় চোখ বুঝে ব্যবহার করা যায়। মৌসুমের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময়টা সামনে। শিরোপা স্বপ্নে পথে হাঁটতে হলে মুখোমুখি হতে হবে বড় বড় ক্লাবের। বিশেষ করে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে।

সামনের এই কঠিন এবং চ্যালেঞ্জিং পথটা বার্সা কোচ ব্যাক আপ স্ট্রাইকার ছাড়া পাড়ি দেওয়ার ঝুঁকিটা নিতে চান না। তাই ক্লাব কর্তাদের আল্টিমেটাম দিয়েছেন শিগগির একজন ভালোমানের স্ট্রাইকার কেনার।

তা বার্সেলোনার রাডারে বর্তমানে একজন মানসম্পন্ন স্ট্রাইকার আছেনও। তিনি চেলসির স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড আলভারো মোরাতা। ২০১৭ সালে ২৬ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডকে বড় সখ করেই রিয়াল মাদ্রিদ থেকে চড়া দামে কিনে নিয়েছিল চেলসি। দলে ভিড়িয়েছিল ৭০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে। কিন্তু মোরাতা চেলসিতে নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি। চেলসি তাই তাকে বিক্রি করেই দিতে চাইছে। মোরাতাও চেলসি ছেড়ে যোগ দিতে চাইছেন অন্য কোথাও।

সেই অন্য কোথাওটা যদি হয় বার্সেলোনা, সেটি হতে মোরাতার জন্য বড় এক পাওয়া। বার্সেলোনাও স্বদেশি এই স্ট্রাইকারের প্রতিভা-দক্ষতায় মুগ্ধ। কিন্তু সমস্যা হলো দাম। বার্সেলোনা ভালো করেই জানে, মোরাতাকে আনতে হলে মোটা অঙ্কের টাকাই ঢালতে হবে। অন্তত চেলসি তাকে যে দামে কিনেছিল, সেই পরিমাণ টাকাই গুণতে হবে।

কিন্তু গত দুই মৌসুমে একের পর এক খেলোয়াড় কিনে বার্সেলোনার তহবিল এখন ফাঁকা। মোরাতাকে কেনার মতো নগদ টাকা তাদের তহবিলে বর্তমানে নেই। তবে জরুরী ভিত্তির স্ট্রাইকার চাহিদা সেই তহবিল শূন্যতাও বার্সাকে দমিয়ে রাখতে পারছে না। স্প্যানিশ গণমাধ্যমের খবর, এরই মধ্যে মোরাতার সঙ্গে প্রাথমিক আলোচনা শুরু করে দিয়েছে বার্সেলোনা।

পাশাপাশি সস্তায় কেনা যায়, এমন কাউকেও খুঁজছে। যদি তা না মেলে, শেষ পর্যন্ত ধার কর্জ করে হলেও মোরাতাকেই দলে ভেড়াতে চায় তারা। দেখা যাক, জল কোন দিকে গড়ায়।

কেআর/পিএ