পোস্টপ্রতি রোনালদোর আয় ৭৫ হাজার ডলার, মেসি-নেইমারের?

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ | ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

পোস্টপ্রতি রোনালদোর আয় ৭৫ হাজার ডলার, মেসি-নেইমারের?

পরিবর্তন ডেস্ক ৮:১০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৮

পোস্টপ্রতি রোনালদোর আয় ৭৫ হাজার ডলার, মেসি-নেইমারের?

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর বার্ষিক বা মাসিক আয় কত? অঙ্কটা জানতে হলে আপনাকে জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকার ব্যক্তিগত হিসাবরক্ষকের চাকরিটা বাগিয়ে নিতে হবে! কারণ, বাইরের লোকের পক্ষে তার আয়ের হিসাব জানা সম্ভব না! ক্লাবের বেতন, নানা রকম বোনাস, হাত খরচ, পুরস্কার জয়ের প্রাইজমানি, বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে বিজ্ঞাপনী চুক্তি, ইমেজস্বত্ব- আয়ের খাত হাজারটা। কয়টার হিসাব রাখবেন? শুধু তো এগুলোই নয়। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে ছবি-স্ট্যাটাস পোস্ট করে আয় করেন কাড়ি কাড়ি টাকা। অন্যগুলোর কথা বাদ দিন, এক ইনস্টাগ্রামেই প্রতি পোস্টে রোনালদোর আয় ৭৫ হাজার মার্কিন ডলার!

হ্যাঁ, সামাজিক যোগাযোগের যে মাধ্যমগুলোতে আপনাকে ছবি আপ করতে হয় গাটের পয়সা খরচ করে, সেখানেই প্রতিটা ছবি পোস্ট করে রোনালদোর পকেটে ঢুকে সাড়ে ৭ লাখ মার্কিন ডলারের চেক! প্রতি সপ্তাহে যদি একটা করে ছবিও পোস্ট করেন, তাহলেও মাসে তার আয় ৩০ লাখ ডলার!

ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার- এই তিন মাধ্যম মিলিয়ে বিশ্বের সব অঙ্গনের সেলিব্রেটিদের মধ্যে রোনালদোর অনুসারীর সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি। মানে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তিনিই বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয়। অবিসংবাদিত কিং। বিশ্বজুড়ে তার অনসুারীর সংখ্যা ৩৪০ মিলিয়ন!

স্বাভাবিকভাবেই তার একটা ছবি বা স্ট্যাটাস দেওয়া মানেই অনুসারীরা হুমড়ি খেয়ে পড়ে। কার ছবিতে কত ক্লিক পড়ে, সেটার ভিত্তিতেই প্রতি পোস্টের মূল্য নিরূপণ করা হয়। সেই হিসাবে অবশ্য পোস্ট প্রতি রোনালদোর আয়ই সবচেয়ে বেশি হওয়ার কথা। কারণ তার অনুসারীর সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি।

কিন্তু না, অনুসারীর সংখ্যা বেশি হলেও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট প্রতি আয়ে রোনালদোকে হারিয়ে দিয়েছেন দুই মার্কিন নারী। তারা হলেন যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো তারকা কাইল জেনার ও অভিনেত্রী-সঙ্গীতশিল্পী সেলেনা গোমেজ। খোলামেলা পোশাক ও আকর্ষণীয় ফিগারের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের এই নারীর ছবিই ইনস্টাগ্রামের দর্শকদের টানে সবচেয়ে বেশি।

ফলে পোস্ট প্রতি তাদের আয়ও বেশি। প্রতি পোস্টে কাইল জেনারের আয় ১০ লাখ ডলার। সেলেনা গোমেজও কম যান না। প্রতি পোস্ট থেকে তার অ্যাকাউন্টে জমা হয় ৮ লাখ ডলার।

রোনালদোর আয় দেখে মেসি-নেইমারদের পোস্ট প্রতি আয় জানতেও নিশ্চয় কৌতূহল জাগছে। তা জাগারই কথা। তবে পোস্ট প্রতি আয়ের হিসাবটা দেখলে মেসি ভক্তরা একটু হতাশই হবেন। রোনালদোর তুলনায় মেসির পোস্ট প্রতি আয় যে অনেক কম। মেসির আয় ৫ লাখ ডলার। মানে একেকটা পোস্ট থেকেই মেসির চেয়ে রোনালদোর আয় আড়াই লাখ ডলার বেশি!

তুলনায় নেইমার অবশ্য অনেকটা এগিয়ে। পিএসজির ব্রাজিলিয়ান তারকা প্রতি পোস্টে আয় করেন ৬ লাখ ডলার। মানে তিনিও মেসির চেয়ে প্রতি পোস্টে ১ লাখ ডলার বেশি আয় করেন।

ফুটবলারদের মধ্যে পোস্ট প্রতি আয়ে রোনালদো, নেইমার ও মেসির পর আছেন ডেভিড বেকহাম। ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক প্রতি পোস্টে আয় কনে ৩ লাখ ডলার। রিয়াল মাদ্রিদের ওয়েলস তারকা গ্যারেথ বেল প্রতি পোস্টে আয় করেন ১ লাখ ৮৫ হাজার ডলার। সুইডেনের সাবেক ফরোয়ার্ড জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ আয় করেন ১ লাখ ৭৫ হাজার ডলার। বার্সেলোনার উরুগুইয়ান তারকা লুইস সুয়ারেজের পোস্ট প্রতি আয় ১ লাখ ৫০ হাজার ডলার।

ক্রিকেটারদের সবচেয়ে বেশি আয়টা প্রত্যাশিত একজনেরই। তিনি ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। প্রতি পোস্টে তার আয় ১ লাখ ২০ হাজার ডলার! 

কেআর/এএল/