পগবা ইস্যুতে বার্সাকে আবারও ‘না’ ইউনাইটেডের!

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

পগবা ইস্যুতে বার্সাকে আবারও ‘না’ ইউনাইটেডের!

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:৩৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৮

পগবা ইস্যুতে বার্সাকে আবারও ‘না’ ইউনাইটেডের!

বার্সেলোনাকে আরও একবার হতাশ করল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ইংলিশ ক্লাবটি নাকি সাফ জানিয়ে দিয়েছে, পল পগবাকে কিছুতেই বিক্রি করা হবে না। শুধু তাই নয়। কোচ হোসে মরিনহোর সঙ্গে পগবার দ্বন্দ্ব-তিক্ততা-ঝগড়ার বিষয়টিও উড়িয়ে দিয়েছে ইউনাইটেড। ইউনাইডটেড নাকি সরাসরি স্কাই স্পোর্টসের উপস্থাপক জেমস কুপারের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানিয়েছে, এসবই মিথ্যা। ইংলিশ ক্লাবটি নাকি এই দাবিও করেছে, কোচ মরিনহোর সঙ্গে পগবার সম্পর্কটা খুবই ভালো!

মরিনহো পগবাকে ক্লাব কর্তাদের কাছে দলবদলের অনুমতি চাইতে বলেছেন বলে আগের দিন যে খবর ছড়ায়, সেটিও উড়িয়ে দিয়েছে ইউনাইটেড। ক্লাবটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মরিনহো ও পগবার সঙ্গে নতুন করে বাগ-বিতণ্ডা হয়েছে বলে যে গুঞ্জন ছড়ানো হয়েছে, তা ডাহা মিথ্যা। তাদের মধ্যে নতুন করে কোনো ঝামেলাই নাকি হয়নি। মরিনহোও নাকি পগবাকে ক্লাব ছাড়ার অনুমতি চাইতে বলেননি।

২৫ বছর বয়সী ফরাসি এই মিডফিল্ডারের জন্য বার্সেলোনার প্রস্তাব আগেই ফিরিয়ে দিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। কিন্তু ইউনাইটেডের সেই ‘না’র পরও নতুন করে গুঞ্জন ছড়ায়, বার্সেলোনাকে হৃদয়ে গেথে ফেলেছেন পগবা। যে করেই হোক ইউনাইটেড ছেড়ে তিনি যেতে চান বার্সেলোনায়। পগবার এজেন্ট মিনো রাইওলা নাকি বার্সেলোনার দ্বিতীয় প্রস্তাবটি গ্রহণও করে ফেলেছেন।

অবস্থা বেগতিক দেখে মরিনহোও নাকি পগবাকে পরামর্শ দেন ক্লাবের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে দলবদলের অনুমতি চাওয়ার জন্য। গণমাধ্যমের এই খবরে বার্সেলোনা হয়তো পগবাকে পাওয়ার বিষয়ে আবার আশাবাদী হয়েই উঠেছিল। কিন্তু বার্সার সেই আশায় জলই ঢেলে দিল ইউনাইটেড।

যাই হোক, ইউনাইটেডের দাবি মতো মরিনহোর সঙ্গে পগবার নতুন করে ঝগড়ার খবরটি গুঞ্জন হতে পারে। কিন্তু ওল্ড ট্রাফোর্ডে পগবা অসুখী, এই খবরটি সত্যই। কারণ, এই বোমাটা ফাটিয়েছেন পগবা নিজেই। এবং প্রকাশ্যে। গত শনিবার লেস্টার সিটির বিপক্ষে ম্যাচ শেষে পগবা গণমাধ্যমের সামনেই বিস্ফোরক এক মন্তব্য করে বসেন। স্পষ্ট করেই জানিয়ে বলেন, ‘এমন কিছু বিষয় আছে, যা বলার একতিয়ার আমার নেই। বললে আমাকে শাস্তি পেতে হবে। তবে এটা তো সবাই জানেন যে, একজন খেলোয়াড়ের জন্য সুখী থাকাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সুখী না থাকলে আপনি স্বস্তিবোধ করবেন না।’

পগবার এই মন্তব্যের জের ধরেই নাকি কোচ মরিনহোর সঙ্গে নতুন করে কথা কাটাকাটি হয় তার। আর সেই ঝগড়ার পরই নাকি মরিনহো পগবাকে ক্লাব কর্তাদের কাছে দলবদলের অনুমতি চাইতে বলেন। কিন্তু ইউনাইটেড এউ দুটো গুঞ্জনেই জল ঢালল।

উল্লেখ্য, পগবার সঙ্গে কোচ মরিনহোর তিক্ততাটা গত মৌসুম থেকেই। কোচের সঙ্গে মনোমালিন্যের জের ধরে গত জানুয়ারিতেই ইউনাইটেড ছাড়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেন পগবা। গোপনে একাদিক ক্লাবের সঙ্গে যোগাযোগও করেন তিনি। মরিনহোও তখন পগবাকে বিক্রি করে দিতেই চেয়েছিলেন। কিন্তু ক্লাব ইউনাইটেড তাকে বিক্রি করতে রাজি ছিল না। ক্লাব কর্তারা বরং কোচ মরিনহোকে তাগিদ দেন পগবার সঙ্গে তিক্ততাটা মিটিয়ে ফেলার।

ক্লাবের পক্ষ থেকে পরোক্ষ এই চাপ। সঙ্গে ফ্রান্স জাতীয় দলের হয়ে ২০১৮ বিশ্বকাপে পগবার দুর্দান্ত পারফরম্যান্স। দুইয়ে মিলে মরিনহো পগবার সঙ্গে সম্পর্কটা নতুন করে গড়ারই উদ্যোগ নেন। সুখী করতে লেস্টার সিটির বিপক্ষে ম্যাচটাতে পগবাকে অধিনায়কও করেন মরিনহো। এমনকি আগামী রোববার ব্রাইটনের বিপক্ষে ম্যাচেও পগবাকেই অধিনায়ক হিসেবে ঘোষণা করেছেন মরিনহো। কিন্তু তা সত্ত্বেও শনিবার ম্যাচ শেষে বিস্ফোরক ওই মন্তব্য করে বার্সেলোনায় যোগ দেওয়ার গুঞ্জনটাকে নতুন করে উসকে দেন পগবা।

কেআর