‘হঠাৎ হট কেক’ মিলানকোভিচকে নিয়ে ‘বিগ ফোর’-এর যুদ্ধ!

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আগস্ট ২০১৮ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৫

‘হঠাৎ হট কেক’ মিলানকোভিচকে নিয়ে ‘বিগ ফোর’-এর যুদ্ধ!

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:০৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৮

print
‘হঠাৎ হট কেক’ মিলানকোভিচকে নিয়ে ‘বিগ ফোর’-এর যুদ্ধ!

এখনো পর্যন্ত এবারের দলবদলে সবচেয়ে বড় উত্তাপটা উপহার দিয়েছে জুভেন্টাস ও রিয়াল মাদ্রিদ। জুভেন্টাস কিনে, রিয়াল বেচে। জুভেন্টাস কিনে নিয়েছে রিয়ালের প্রানভোমড়া ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে। গণমাধ্যমের খবর, জুভেন্টাস আবারও হাত বাড়িয়েছে রিয়ালের দিকে। কিনতে চাইছে রিয়ালের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলোকে। অভ্যন্তরিণ এই লড়াইয়ে এবারও জুভেন্টাস জয়ী হবে কিনা, বলবে সময়। তবে রিয়াল-জুভেন্টাস এবার জড়িয়ে পড়ল বাহ্যিক এই লড়াইয়েও। দুই দলই ঝাপিয়ে পড়েছে ‘হঠাৎ হট কেক’ হয়ে উঠা সের্গেই মিলানকোভিচ-সাভিচকে কেনার জন্য।

ঝাপিয়ে পড়েছে বললে আসলে একটু কমই বলা হয়। ইতালি ও স্পেনের গণমাধ্যমের খবর, লাৎসিও’র সার্বিয়ান এই মিডফিল্ডারকে কেনার জন্য রীতিমতো যুদ্ধ শুরু করে দিয়েছে রিয়াল ও জুভেন্টাস। তবে প্রকাশ্য নয়, গোপন যুদ্ধ। দুই দলই সার্বিয়ার তরুণ মিডফিল্ডারকে কেনার জন্য মরিয়া। কিন্তু হাতছাড়া হওয়ার ভয়ে প্রকাশ করছে না কেউই। তলেতলে চেষ্টাটা চালিয়ে যাচ্ছে।

এবারের দলবদল শুরুর আগে লাৎসিও’র এই সার্বিয়ান তরুণকে সেভাবে চিনতই না ফুটবল দুনিয়া। হঠাৎই তাকে ‘হট কেক’ বানিয়ে দেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পর্তুগিজ কোচ হোসে মরিনহো। সার্বিয়ান তরুণের জন্য মরিনহো দাম হাঁকিয়ে বসেন ১০০ মিলিয়ন ইউরো। সেটা বিশ্বকাপ শুরুর সময়কার ঘটনা। কোচ মরিনহোর পছন্দে ইউনাইটেডের সেই প্রস্তাবই দলবদলের বাজারে ‘হঠাৎ হট কেক’ করে তুলে মিলানকোভিচ-সাভিচকে।

প্রথম হাঁকেই ১০০ মিলিয়ন ইউরো। ইউনাইটেডের সেই প্রস্তাব যেন টাকার ক্ষুধা বাড়িয়ে দেয় লাৎসিও’র। বিশাল অঙ্কের সেই প্রস্তাবও ফিরিয়ে দেয় ইতালিয়ান ক্লাবটি। তবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ‘না’ শুনেই দমে যায়নি। বরং মরিনহোরিইউনাইটেড নাকি সার্বিয়ান মিডফিল্ডারকে ১২০ মিলিয়ন ইউরোতেও কেনার জন্য তৈরি।

কিন্তু ইউনাইটেড ১২০ মিলিয়নেও মিলানকোভিচকে কিনতে পারবে বলে মনে হয় না। কারণ, তাদের শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে মাঠে নেমে পড়েছে রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাস। সার্বিয়ান তরুণকে কিনতে চাইছে ইতালির আরেক জায়ান্ট এসি মিলানও। মানে ২৩ বছর বয়সী তরুণকে পাওয়ার লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়েছে ‘বিগ ফোর’।

ইউরোপের অন্যতম বড় ৪টি ক্লাবের আগ্রহ দেখে লাৎসিওও নড়েচড়ে বসেছে। দাম বাড়ানোর কৌশল হিসেবেই কিনা লাৎসিও’র সভাপতি ক্লদিও লোতিতো নতুন করে গাইলেন মিলানকোভিচ প্রশংসার গান। কোরিয়েরে দেল্লা সেরা’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ক্লদিও লোতিতো স্পষ্ট করেই বললেন, ফরাসি মিডফিল্ডার পল পগবার চেয়েও মিলানকোভিচ বেশি প্রতিভাবান।

সার্বিয়ান তরুণকে কেনার জন্য এরই মধ্যে রিয়াল, জুভেন্টাস, ইউনাইটেড এবং এসি মিলান প্রস্তাব দিয়েছে দাবি করে লোতিতো বলেছেন, ‘সের্গেই বিশ্বের সেরা তরুণ খেলোয়াড়। তার সম্ভাবনা অনেক। মিলান বা জুভেন্টাস কিংবা রিয়াল-ইউনাইটেড, আমি কারো প্রস্তাবই গ্রহণ করিনি।’

পাশাপাশি লোতিতো আগ্রহী ৪ জায়ান্টকে এটাও মনে করিয়ে দিলেন, মিলানকোভিচকে নিতে হলে বিশাল অঙ্কের টাকাই গুণতে হবে, ‘অবশ্যই আমরা তার মতো একজন অমিয় প্রতিভাবানকে বিক্রি করতে চাই না। কিন্তু যদি দামের  কথা জানতে চান, তাহলে আমি আপনাকে গত বছরের একটা ঘটনার কথাই শুধু মনে করাতে চাইব। গত বছরের ২৯ আগস্ট, ওর জন্য ১১০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাবও আমি ফিরিয়ে দিয়েছিলাম।’

বুঝিয়ে দিয়েছেন গত বছরই যার জন্য ১১০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন, তাকে নিতে চাইলে তো টাকার অঙ্কটা আরও অনেক বড়ই হতে হবে। লোতিতোর এই কথা শুনে ‘বিগ ফোর’ দমে যায়, নাকি সার্বিয়ার হয়ে বিশ্বকাপে ৩টি ম্যাচেই খেলা মিলানকোভিচকে কেনার জন্য আরও বেশি মরিয়া হয়ে উঠে, সেটাই এখন দেখার।

কেআর

 
.


আলোচিত সংবাদ