৩৫-এ কুর্তোইসকে বেচে রেকর্ড ৮০ মিলিয়নে কেপাকে কিনল চেলসি!

ঢাকা, রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮ | ৫ কার্তিক ১৪২৫

৩৫-এ কুর্তোইসকে বেচে রেকর্ড ৮০ মিলিয়নে কেপাকে কিনল চেলসি!

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৪৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৯, ২০১৮

৩৫-এ কুর্তোইসকে বেচে রেকর্ড ৮০ মিলিয়নে কেপাকে কিনল চেলসি!

রেকর্ড গড়াই হয় ভাঙ্গার জন্য। তাই বলে এতো তাড়াতাড়ি লিভারপুল ও আলিসনের রেকর্ডটা ভেঙে যাবে, এটা কল্পনাও করা যায়নি। এই তো গত ১৯ জুলাই রেকর্ড ৭২.৫ মিলিয়ন ইউরোয় রোমা থেকে আলিসনকে কিনে আনে লিভারপুল। চুক্তিটির মধ্যদিয়ে এই ব্রাজিলিয়ান বনে যান ইতিহাসের সবচেয়ে দামী গোলরক্ষক। কিন্তু সবচেয়ে দামী গোলরক্ষকের মুকুটটা তিন সপ্তাহও মাথায় রাখতে পারলেন না আলিসন। ২০ দিন না যেতেই আলিসনের সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়ে কেপা অ্যারিজাবালাগাকে চেলসি কিনল নতুন রেকর্ড গড়ে। অ্যাথলেতিক বিলবাও থেকে এই স্প্যানিশ গোলরক্ষককে চেলসি কিনল রেকর্ড ৮০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে!

মানে আলিসনকে টপকে ২৩ বছর বয়সী কেপা বনে গেলেন ইতিহাসের সবচেয়ে দামী গোলরক্ষক। অনেক দেনদরবারের পর গতকাল বুধবারই চেলসি থেকে থিবো কুর্তোইসকে দলে ভিড়িয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। বলা যায়, ২৬ বছর বয়সী এই বেলজিয়ান গোলরক্ষককে রিয়ালের কাছে বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছে চেলসি। কারণ, রিয়ালে যোগ দেওয়ার জন্য কুর্তোইস ক্লাব চেলসির সঙ্গে রীতিমতো যুদ্ধ শুরু করে দিয়েছিলেন।

চেলসি তাই বাধ্য হয়েই তাকে রিয়ালের কাছে ৩৫ মিলিয়ন ইউরোয় বিক্রি করে দিয়েছে। সঙ্গে কেপা চমকও দিয়েছে চেলসি। কুর্তোইসকে বিক্রি করার দিনেই অর্থাৎ গতকাল বুধবারই কেপাকে রেকর্ড দামে ঘরে তুলেছে চেলসি। মানে সকালে এক দরজা দিয়ে বেরিয়ে গেছেন কুর্তোইস, বিকালে আরেক দরজা দিয়ে চেলসির অন্দরে প্রবেশ করেছেন কেপা।

মজার বিষয় আছে আরও একটি। এই কেপার সঙ্গেও জড়িয়ে আছে রিয়াল মাদ্রিদের নাম। ২৩ বছর বয়সী কেপাকে যে কিনতে চেলসির এতো টাকা ঢালতে হলো, সেটা রিয়ালের কারণেই। গত জানুয়ারিতে শীতকালীন দলবদলের সময় এই কেপাকে কিনতে চেয়েছিল রিয়ালই। রিলিজ ক্লজের পুরো টাকা দিয়েই কেপাকে কেনার কথা-বার্তা প্রায় চূড়ান্তই করে ফেলেছিল রিয়াল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বেকে বসে কেপার ক্লাব অ্যাথলেতিক বিলবাও। রিয়ালকে দেওয়া কথা থেকে সরে গিয়ে স্প্যানিশ ক্লাবটি হুট করেই কেপার রিলিজ ক্লজ বাড়িয়ে দেয়।

মানে রিয়ালের চাপাচাপিতেই কেপার রিলিজ ক্লজ ৬৫ মিলিয়ন থেকে বাড়িয়ে ৮০ মিলিয়ন করে ফেলে বিলবাও। সঙ্গে রিয়ালকে জানিয়ে দেয়, কেপাকে নিতে হলে নতুন রিলিজ ক্লজের ৮০ মিলিয়নই লাগবে। কিন্তু রিয়াল তাতে রাজি হয়নি। মাদ্রিদ জায়ান্টরা বরং কেপার আশা ভুলে গিয়ে হাত বাড়ায় কুর্তোইসের দিকে।

শেষ পর্যন্ত বেলজিয়ান গোলরক্ষককে ঘরেও তুলেছে রিয়াল। কিন্তু চেলসি এর প্রতিশোধই যেন নিল একটু অন্যভাবে। রিয়ালের পছন্দের সেই কেপাকে কিনে! স্প্যানিশ এই তরুণ গোলরক্ষকের সঙ্গে চেলসি চুক্তি করেছে ৭ বছরের জন্য। স্পেন ছেড়ে এরই মধ্যে স্টাম্পফোর্ডব্রিজে পা-ও রেখেছেন কেপা।

যাই হোক, রেকর্ড গড়ে চেলসিতে যোগ দিতে পেরে ভীষণ খুশি কেপা। আনুষ্ঠানিক চুক্তির পর চেলসির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে দেওয়া তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেছেন, ‘আমার জন্য, আমার ক্যারিয়ারের জন্য এবং আমার ব্যক্তিগত জীবনের জন্য এই সিদ্ধান্তটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

সেই ছোট বেলা থেকেই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলা এবং ইংল্যান্ডে বসবাস করার স্বপ্ন ছিল জানিয়ে বলেছেন, ‘এই ক্লাবটিতে আসতে অনেক কিছুই আমাকে আকৃষ্ট করেছে। এই ক্লাবের জেতা শিরোপাগুলো, ক্লাবটির নামীদামী সব খেলোয়াড়, এই শহর (লন্ডন), সর্বোপুরি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। অনেক ভালোলাগার সংমিশ্রণেই এই চুক্তি। আমি খুবই গর্বিত এবং আনন্দিত যে, চেলসি আমার উপর আস্থা রেখেছে এবং আমাকে দলে টেনেছে।’

এখন দেখার বিষয়, ইতিহাসের সবচেয়ে দামী গোলরক্ষকের খেতাবটা কেপা কত দিন ধরে রাখতে পারেন।

কেআর