রোনালদোর জন্য তার দুই সতীর্থের আত্মত্যাগ!

ঢাকা, সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮ | ৫ ভাদ্র ১৪২৫

রোনালদোর জন্য তার দুই সতীর্থের আত্মত্যাগ!

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:১৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০১৮

রোনালদোর জন্য তার দুই সতীর্থের আত্মত্যাগ!

রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। ইতালিয়ান ক্লাবটিতে যোগ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই পর্তুগিজ তারকা পেতে শুরু করেছেন নতুন সতীর্থদের ভালোবাসা। সতীর্থরা তার জন্য করছেন ত্যাগ স্বীকারও। হ্যাঁ, এরই মধ্যে রোনালদোর জন্য বড় ত্যাগ স্বীকার করেছেন তার দুই জুভেন্টাস সতীর্থ। সতীর্থরা ত্যাগ স্বীকার করবেনই তো, তিনি রোনালদো বলে কথা।

তা এই রোনালদোর জন্য কী ত্যাগ করেছেন তার দুই জুভেন্টাস সতীর্থ? নিজেদের পছন্দের ‘৭ নম্বর’ জার্সির মালিকানা দিয়ে দিয়েছেন রোনালদোকে! ‘৭ নম্বর’কে নিজের ব্র্যান্ড বানিয়ে ফেলেছেন রোনালদো। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে থাকতেই রোনালদোর নাম হয়ে যায় ‘সিআর৭’।

২০০৯ সালে ইংলিশ ক্লাবটি ছেড়ে রিয়ালে যোগ দেওয়ার পর অবশ্য তার গায়ে উঠে ৯ নম্বর জার্সি। কারণ, রিয়ালে তখন ৭ নম্বর জার্সির মালিক ছিলেন কিংবদন্তি রাউল গঞ্জালেস। তবে ২০১০ সালে রাউল রিয়াল ছেড়ে চলে যাওয়ার পরই রোনালদোর গায়ে ওঠে ‘প্রিয় ৭’। সেই থেকে ক্লাব বা জাতীয় দল, সব জায়গাতেই রোনালদো খেলছেন ৭ নম্বর জার্সি পরে।

সেই রোনালদো জুভেন্টাসে গিয়েও ‘পছন্দের ৭’ পাবেন, এটা অবধারিতই ছিল। তবে তার এই ‘পাওনা’ নিশ্চিত করতে ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে অন্যদের। মানে দুজনকে।

প্রশ্ন উঠতে পারে এক ‘৭ নম্বরে’র জন্য দুজনের ত্যাগ স্বীকারের বিষয়টি আসে কিভাবে? আসলে সত্যিকার অর্থে ত্যাগ স্বীকার করেছেন একজন। তিনি কলম্বিয়ান ফরোয়ার্ড হুয়ান কুয়াদরাদো। অন্যজনের ত্যাগ স্বীকারের বিষয়টি এক অর্থে ‘ভুয়া! তিনি ইতালিয়ান ডিফেন্ডার লিওনার্দো স্পিনাজ্জোলা।

এতোদিন কলম্বিয়ান ফরোয়ার্ড কুয়াদরাদো জুভেন্টাসে ৭ নম্বর পরে খেলতেন। কিন্তু চুক্তিপত্রে সই করার পরই রোনালদোকে তার পছন্দের ‘৭ নম্বর’ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিচয়পর্বের দিনই রোনালদোর হাতে তুলে দেওয়া হয় তার পছন্দের ৭।

রোনালদোর জন্য এই স্বীকার করতে গিয়ে কুয়াদরাদো এখনো খালি গায়ে আছেন। মানে তাকে এখনো নতুন জার্সি দেওয়া হয়নি। কুয়াদরাদো তাই এখনো জানেন না, আসন্ন মৌসুমে তিনি কত নম্বর জার্সি পরে খেলবেন।

এবার ‘ভুয়া’ ত্যাগ স্বীকারের বিষয়ে একটু পরিস্কার হওয়া যাক। ইতালির ২৫ বছর বয়সী ডিফেন্ডার লিওনার্দো স্পিনাজ্জোলা শুধু চুক্তিপত্রেই জুভেন্টাসেই খেলোয়াড়। বাস্তবে জুভেন্টাসের মূল দলের হয়ে এখনো একটা ম্যাচও খেলেননি। ২০১২ সালে চুক্তির পর থেকেই ধারে খেলছেন বিভিন্ন ক্লাবে। সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমটিতে তিনি যেমন ধারে খেলেছেন আটালান্টায়। যে ক্লাবটিতে তিনি খেলেছেন ৭ নম্বর জার্সি পরে।

তো এই লিওনার্দো স্পিনাজ্জোলাকে এবার ফিরিয়ে এনেছে জুভেন্টাস। ৭ নম্বর যেহেতু কুয়াদরাদোর ছিল, তাই জুভেন্টাসে তাকে ‘৭’ মিল রেখে ৩৭ নম্বর জার্সি! কিন্তু তারও পছন্দ যেহেতু ‘৭’, এবং সেই ‘৭’ যেহেতু রোনালদোকে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, তাই স্পিনাজ্জোলা মনে করেন রোনালদোর জন্য তিনিও ত্যাগ স্বীকার করেছেন!

মজার বিষয়টিও এখানেই। জুভেন্টাসে ‘৭ নম্বরের’ সর্বশেষ মালিক কুয়াদরাদো ত্যাগ স্বীকারের কথা উচ্চারণও করেননি। বরং রোনালদোর নাম লেখা ৭ নম্বর জার্সিটা হাতে নিয়ে হাসিমুখে ছবি তুলেছেন। অথচ ‘৭-এর ভুয়া’ দাবিদার স্পিনাজ্জোলা রীতিমতো ঢাকঢোল পিটিয়ে প্রচার করছেন রোনালদোর জন্য ত্যাগ স্বীকার করার কথা! আসলে ২৫ বছর বয়সী স্পিনাজ্জোলা মজা করেই বলেছেন, রোনালদোকে ‘৭ নম্বর’ দেওয়ার পেছনে তারও ত্যাগ আছে, ‘৭ নম্বর আসলে আমার। কিন্তু আমি যখন এলাম, এটা কুয়াদরাদো নিয়ে এল। আর আমি এখন এটা রোনালদোকে নিতে দিলাম।’

৭ নিয়ে মজা করতে গিয়ে রোনালদোকে প্রশংসায়ও ভাসিয়েছেন স্পিনাজ্জোলা। রোনালদোর মতো একজন সুপারস্টারকে ক্লাব সতীর্থ হিসেবে পেয়ে অভিভুত তিনি, ‘৬ বছর আগে এটা কল্পনা করাও অসম্ভব ছিল যে, জুভেন্টাস রোনালদোকে দলে টানবে। সত্যিই অসাধারণ একটা কাজ করেছে ক্লাব। আমি খুব খুশি।’

কেআর/পিএ