এখন হলে ব্যালন ডি’অর জিততেন সালাহ!

ঢাকা, রবিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫

এখন হলে ব্যালন ডি’অর জিততেন সালাহ!

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:২০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৬, ২০১৮

print
এখন হলে ব্যালন ডি’অর জিততেন সালাহ!

মোহামেদ সালাহ’র উত্থানটা হ্যালির ধুমকেতুর মতো। হুট করেই কলি থেকে বিশ্ব ফুটবল আকাশের প্রস্ফুটিত তারা। সেই তারা এতোটাই জ্বলজ্বল করছে যে, তার আলোয় গত এক দশক ধরে বিশ্ব ফুটবলকে শাসন করে চলা মেসি-রোনালদোও ম্লাণ! অতি-রঞ্জিত কথা নয়, সত্যি। গত গ্রীষ্মে লিভারপুলে যোগ দেওয়ার পর থেকেই মিশরীয় উইঙ্গার উড়ছেন। এই মুহূর্তে তো আছে অবিশ্বাস্য ফর্মে। যেন ভিন্ন কোনো গ্রহ থেকে নেমে এসেছেন। তার সেই উড়ন্ত ফর্ম তুলে দিয়েছে ব্যালন ডি’অরের আলোচনা। মেসি-রোনালদোর রাজত্বে হানা দিয়ে সালাহ-ই ২০১৮ সালের ব্যালন ডি’অর জিতবেন কিনা, ইউরোপজুড়ে সেই আলোচনা এখন তুঙ্গে।

শুধু আলোচনা নয়, মেসি-রোনালদোকে পেছনে ফেলে সালাহ ২০১৮ সালের ব্যালন ডি’অর জিততে পারবেন কিনা, তা নিয়ে রীতিমতো ভোটাভুটিরও আয়োজন করেছে স্পেনের জনপ্রিয় ক্রীড়া দৈনিক মার্কা। পত্রিকাটির অন্য লাইন পাঠকদের জন্য আয়োজিত সেই ‘হ্যাঁ, না’ ভোটের রায় কি হবে, জানা যাবে পরে।

তবে পত্রিকাটির ৫ জন স্বনামধন্য ফুটবল লিখিয়ে এক টেবিলে বসে এরই মধ্যে তাদের মতামত জানিয়েছেন। তাতে দেখা যাচ্ছে, সালাহই বিজয়ী! মোহামেদ সালাহ’র ব্যালন ডি’অর জয়ের সম্ভাবনার পক্ষে ‘হ্যাঁ’ ভোট দিয়েছেন ৩ জনে। দুজনের ভোট পড়েছে ‘না’ বাক্সে। তবে ৫ জনেই একমত, এই মুহূর্তে দেওয়া হলে মেসি-রোনালদোকে হতাশ করে মর্যাদার ব্যালন ডি’অর জিততেন মোহামেদ সালাহ-ই! অবিশ্বাস্য ফর্ম বিবেচনায় এই মুহূর্তে সালাহকেই এগিয়ে রাখছেন সবাই।

শুধু মার্কার ৫ ফুটবল সাংবাদিক-বোদ্ধা নন, বিশ্বের অন্য ফুটবল বোদ্ধাদের মতেও এই মুহূর্তে সালাহই এগিয়ে। বিটি স্পোর্টসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে লিভারপুলের সাবেক অধিনায়ক কিংবদন্তি স্টিভেন জেরার্ড তো সরাসরিই বলেছেন, ‘সালাহ জীবনের সেরা ফর্মে আছেন। এখনই তাকে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির সঙ্গে তুলনা করাটা কঠিন। কারণ, তারা দুজনে অনেক দিন ধরেই সেরা ফর্মে রয়েছে। তারা বছরের পর বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলছে। কিন্তু কোনো সন্দেহ নেই, এই মুহূর্তে সালাহ-ই বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়।’

মেসি-রোনালদোর পর নেইমারের মাথায়ই উঠবে বিশ্বসেরার খেতাব। মৌসুমের শুরুতেও এই বিশ্বাসই ছিল ফুটবল দুনিয়ায়। কিন্তু ধুমকেতুর মতো উঠে এসে সেই বিশ্বাসটা উল্টে দিয়েছেন সালাহ। আগামীতে নয়, এবারই হানা দিয়েছেন মেসি-রোনালদোর রাজত্বে। এরই মধ্যে ইউরোপিয়ান সোনার জুতোর দৌড়ে সবার চেয়ে এগিয়ে তিনি। ব্যালন ডি’অর প্রাপ্তির সম্ভাবনার দৌড়েও এগিয়ে।

তকিন্তু শঙ্কাটা হলো, ব্যালন ডি’অরটা দেওয়া হবে বছর শেষে। সালাহ’র পক্ষে ততদিন পর্যন্ত এই জোয়ার ধরে রাখাটা কঠিন হবে। কারণ, সামনেই বিশ্বকাপ। তা বিশ্বকাপে সালাহও যাচ্ছেন বটে। কিন্তু তার দলের নাম মিশর। বিশ্ব ফুটবল মঞ্চে যারা পুঁচকে এক দল। সালাহ’র মিশর রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বে পেরোতে পারবে কিনা, তা নিয়েই সংশয় আছে।

কাজেই আসন্ন বিশ্বকাপ এগিয়ে থাকা সালাহকে পিছিয়ে দেবে বলেই ধারণা অনেকের। মার্কার ফুটবল লিখিয়েদের দুজন যে ‘না’ ভোট দিয়েছেন, সেটা এই বিশ্বকাপকে মাথায় রেখেই। তাছাড়া সালাহ’র ক্লাব লিভারপুলও লিওনেল মেসির মেসির বার্সেলোনা বা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর রিয়াল মাদ্রিদের মতো বিশ্বসেরা ক্লাব নয়। তবে সালাহ’র জন্য আশার কথা, তার উজ্জীবিত নৈপূণ্যে এরই মধ্যে লিভারপুল উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে এক পা দিয়ে ফেলেছে। ‘না’ ভোট দেওয়া মার্কার ওই দুই সাংবাদিক বলেছেন, পর্যবেক্ষণ মন্তব্যে বলেছেন, লিভারপুল যদি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে পারে এবং সালাহ যদি ইউরোপিয়ান সোনার জুতো জিততে পারেন, তাহলে বছর শেষে ব্যালন ডি’অরটাও উঠবে তার হাতেই।

সালাহ-ভক্তরা আফসোস করে বলতেই পারেন, ঈশ, বছর শেষে না হয়ে এখনই যদি ব্যালন ডি’অর’টা দেওয়া হতো!

কেআর

 
.


আলোচিত সংবাদ