বর্ষায় সুস্থ থাকতে তিতা খান

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ | ৫ শ্রাবণ ১৪২৫

বর্ষায় সুস্থ থাকতে তিতা খান

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ০১, ২০১৮

print
বর্ষায় সুস্থ থাকতে তিতা খান

সারা বছরের মধ্যে বর্ষার সময় আমাদের শরীরের রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা একটু কমে যায়। এই সময় পেটের সমস্যা যেমন বেড়ে যায়, তেমনি অ্যালার্জি, ত্বকের ইনফেকশনও ভোগায়। তিতা জাতীয় খাবার শরীরে পিত্তরসের মাত্রা স্বাভাবিক করে হজমে সাহায্য করার পাশাপাশি এই সব খাবারের অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল গুণ সংক্রমণ কাটাতেও সাহায্য করে। তাই বর্ষায় রোজ এই সব খাবার খেলে উপকার পাবেন। আসুন তাহলে আমরা জেনে নেই কোন কোন তিতা জাতীয় খাবার বর্ষায় খাওয়া উচিৎ।

করলা : চিচিঙ্গা, করলা জাতীয় সবজি যেমন পুষ্টিকর, তেমনি বর্ষায় শাক পাতা থেকে পেটের সমস্যা হতে পারে। তাই শাকের বদলে বেশি পরিমাণ এই জাতীয় সবজি রাখুন ডায়েটে। এই সব সবজিতে থাকা ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

মেথি : বর্ষাকালে পেটের সমস্যা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। ডায়েটে মেথি ও জিরা রাখলে এই সমস্যা থেকে দূরে থাকতে পারবেন। সকালে উঠে মেথি ভেজানো পানি খেলে পেট পরিষ্কার থাকবে।

নিম : নিম পাতার রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল গুণ। যা বৃষ্টির পানিতে ভিজা ত্বকের ইনফেকশন সারাতে দারুণ উপকারী।‌

কাঁচা হলুদ : কাঁচা-হলুদের স্বাদ তিতকুটে হলেও রোগ-প্রতিরোধক হিসেবে খুবই উপকারী। নিউট্রাল অ্যান্টিসেপটিক অ্যান্টিবায়োটিক কাঁচা হলুদ। প্রদাহ কমাতেও সাহায্য করে হলুদ।

টিপস:

. করলা ভাতের সাথে খেতে না চাইলে জুস করে খেয়ে ফেলুন।

. মেথি পানিতে ভিজিয়ে খেতে না চাইলে অল্প পরিমাণে রান্নায় ব্যবহার করুন।

. নিম পাতা ত্বকে লাগানোর পাশাপাশি গুঁড়ো করে গুলি বানিয়ে শুকিয়ে খেতে পারেন। অথবা শাকের মতো ভাজি করে ভাতের সাথে খেতে পারেন।

. কাঁচা হলুদও গুলি বানিয়ে শুকিয়ে রোজ নিয়ম করে খেতে পারেন।

ইসি/বিএইচ/

 
.



আলোচিত সংবাদ