ঈদুল ফিতরের নামায আদায়ের নিয়ম

ঢাকা, ১০ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

বিষয় :

ঈদুল ফিতরের নামাজের নিয়ম

ঈদের নামাজ পড়ার নিয়ম

ঈদুল ফিতরের নামাজের নিয়ত

ঈদুল ফিতরের নামাজ কয় রাকাত

ঈদুল ফিতরের নামায আদায়ের নিয়ম

মুহাম্মাদ ফয়জুল্লাহ ১:৫১ অপরাহ্ণ, জুন ০৪, ২০১৯

ঈদুল ফিতরের নামায আদায়ের নিয়ম

ঈদের নামায আদায় করা ওয়াজিব। তাই মুসলিম হিসেবে কর্তব্য হবে পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে আগ্রহ সহকারে ঈদের নামাযে অংশ গ্রহণ করা, মনোযোগ দিয়ে খুতবা শোনা, এবং ঈদের প্রচলনের লক্ষ্য-উদ্দেশ্য সম্পর্কে চিন্তা-ভাবনা করা।

যেহেতু ঈদের নামায বছরে কেবল দু’বার আদায় করা হয়, তাই অনেকেই এর আদায়ের নিয়ম ভুলে যান। তারা অতিরিক্ত তাকবীরগুলোতে ভুল করে ফেলেন। কেউ কেউ অন্যরা কি করছে তা আড় চোখে দেখে অনুসরণের চেষ্টা করেন–যা অবশ্যই নামাযের জন্য ক্ষতিকর। তাই এ নিবন্ধে পাঠকদের জন্য ঈদের নামায আদায়ের পদ্ধতি তুলে ধরা হল।

ঈদের নামায আদায়ের পদ্ধতি
নিয়ত : আমি ইমামের পিছনে কিবলামুখী হয়ে ঈদুল ফিতরের দু’রাকাত ওয়াজিব নামায ছয়টি তাকবীরের সাথে পড়ছি, এরূপ নিয়ত করে ‘আল্লাহু আকবার’ বলে হাত তুলে তাহরিমা বাঁধবে।

তারপর সানা (সুবহানাকাল্লাহুম্মা ওয়া বি-হামদিকা, ওয়া তাবারাকাসমুকা, ওয়া তাআলা জাদ্দুকা, ওয়া লা-ইলাহা গাইরুকা) পুরা পড়বে।

এরপর আউযুবিল্লাহ এবং বিসমিল্লাহর আগে তিনবার ‘আল্লাহু আকবার’ বলে তাকবীর বলবে। প্রথম দু’বার কান পর্যন্ত হাত উঠিয়ে ছেড়ে দিবে। কিন্তু তৃতীয়বার বলে হাত বেঁধে নিবে। প্রত্যেক তাকবীরের পর তিনবার সুবহানাল্লাহ বলা যায় পরিমাণ থামবে। তারপর আউযুবিল্লাহ এবং বিসমিল্লাহ্ পড়ে সূরায়ে ফাতেহার পরে একটা সূরা মিলাবে। এরপর রুকু, সিজদাহ করে দ্বিতীয় রাকাতের জন্য দাঁড়াবে। এবার অন্যান্য নামাযের মতো বিসমিল্লাহর পরে সূরা ফাতেহা পড়ে আরেকটা সূরা মিলাবে। তারপর তিনবার ‘আল্লাহু আকবার’ বলার মাধ্যমে তিনটা তাকবীর সম্পন্ন করবে। এখানে প্রতি তাকবীরের পর হাত ছেড়ে দিবে। চতুর্থবার ‘আল্লাহু আকবার’ বলে হাত না বেঁধে রুকুতে চলে যাবে। এরপর সেজদা এবং আখেরি বৈঠক করে যথারীতি সালাম ফিরিয়ে নামায শেষ করবে।

এমএফ/

আরও পড়ুন...
ঈদুল ফিতরের বিধি-বিধান জেনে নিন
সদকাতুল ফিতর কার ওপর ওয়াজিব
সদকাতুল ফিতর কী ও কেন?
সদকায়ে ফিতরের জরুরী ১০ মাসআলা
রমযানের গুরুত্বপূর্ণ চার শিক্ষা

 

ফতোয়া/মাসায়েল: আরও পড়ুন

আরও