লিপস্টিক ১০ ঘণ্টা স্থায়ী করার টিপস

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

লিপস্টিক ১০ ঘণ্টা স্থায়ী করার টিপস

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৩২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২১, ২০১৯

লিপস্টিক ১০ ঘণ্টা স্থায়ী করার টিপস

বাঙালির যেকোনো উৎসব মানেই খাওয়া দাওয়া থেকে শুরু করে সাজ সজ্জায় থাকবে উৎসবের আমেজ। আর এই আমেজকে ফিকে হতে আমরাও দেব না। মেয়েদের সাজ মানেই ঠোঁটে লিপস্টিক তো চাই চাই। সারাবছর যারা সাজেন পর্যন্ত না, তারাও উৎসবের কটা দিন রঙিন হয়ে ওঠেন। পোশাক থেকে শুরু করে ঠোঁটের লিপস্টিকটুকু পর্যন্ত হওয়া চাই পারফেক্ট। তবে সমস্যা তো একটা না একটা থাকবেই। যেমন ধরুন লিপস্টিক লাগিয়ে বেরনোর কিছুক্ষণের মধ্যে তা ফিকে হতে শুরু করে দেবে। তাই বলে তো লিপস্টিক লাগাবো না? এমনটা চলে না! লিপস্টিকও লাগাবো, আর পেট পুরে খাবো। কিন্তু লিপস্টিক উঠবে না একটুও।

অবাক হলেন? উপায় আছে সহজ। কয়েকটা সামান্য বেসিক মেকাপের নিয়ম মেনে লিপস্টিক লাগালে তা নতুনের মতই দেখাবে ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা। সে আপনি ফুচকা খান বা বিরিয়ানি। ঠোঁটে স্বাদের সাথে আপনার পছন্দের রঙ লেগে থাকবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা।

সহজ নিয়ম মেনে ঠোঁটে লাগান লিপস্টিক

কি কি করবেন লিপস্টিক লাগানোর আগে তা বলছি। কিন্তু প্রথমে জেনে নিন এই এক সপ্তাহ কি করলে আরো ভালোভাবে ঠোঁটকে রঙিন রাখা যাবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা।

ঠোঁট যদি রুক্ষ শুষ্ক হয় তাতে লিপস্টিক লাগালে ভীষণ বিচ্ছিরি দেখতে লাগে। তাই ঠোঁট মসৃণ করে নিন আগেই।

রোজ রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে, ভালো করে টোনার দিয়ে প্রথমে ঠোঁট পরিষ্কার করে নিন।

তারপর বিশুদ্ধ নারকেল তেল এক চা চামচ হালকা গরম করে ঠোঁটে ভালোভাবে লাগিয়ে ঘুমিয়ে পরুন।

সকালে উঠে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ঠোঁট পরিষ্কার করে নিন।

এই এক সপ্তাহ রোজ এটি করুন। স্মুদ ও গ্লসি ঠোঁটের মালকিন হতে আপনি বাধ্য।

এছাড়া শিয়া বাটার ব্যবহার করে আপনারা আপনাদের রুক্ষ শুষ্ক ত্বককে নরম রাখতে পারেন সারা বছর। এটি স্কিনের পাশাপাশি ঠোঁটের জন্য দারুণ কার্যকরী।

পছন্দের লিপস্টিক লেগে থাকবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা

প্রথমে গোলাপজল দিয়ে ঠোঁট পরিষ্কার করে ৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর টোনার লাগিয়ে তা শুকিয়ে গেলে সামান্য ফাউন্ডেশন লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর লিপস্টিকের সাথে ম্যাচ করে লিপলাইনার দিয়ে চারধার একে নিন। এবার লাগিয়ে নিন পছন্দের শেড। ১০ ঘণ্টা ঠিক একই রকম থাকবে।

লিপস্টিক লাগানোর পর হালকা পাউডার নিয়ে ঠোঁটে পাফ করে নিন। এতে ম্যাট ফিল আসবে। আর যদি গ্লসি রাখতে চান তাহলে অবশ্যই লিপ গ্লস লাগাবেন।

এছাড়া মার্কেটে লিপ প্রাইমার পাওয়া যায়। মুখে মেকাপ ধরে রাখার জন্য যেমন ফেস প্রাইমার ব্যবহার করার হয় ঠিক তেমনই, ঠোঁটে লিপস্টিক অনেক্ষন একই রকমের রাখতে ব্যবহার করা হয় লিপ প্রাইমার।

এখন থেকে আর লিপস্টিক উঠে যাওয়ার ভয় আশাকরি থাকবে না। পছন্দের কালার ঠোঁটে লাগান আর হয়ে উঠুন রঙিন

ইসি/

 

ফ্যাশন: আরও পড়ুন

আরও