চুলের বাঁধনে বর্ষার গান

ঢাকা, ৬ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

চুলের বাঁধনে বর্ষার গান

পরিবর্তন ডেস্ক ১:১৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৪, ২০১৯

চুলের বাঁধনে বর্ষার গান

বর্ষায় যেমন চুলের বাঁধন এখন সময়টা ঋতু হিসেবে গ্রীষ্মকাল হলেও যখন তখন বৃষ্টি এসে তার পরশ বুলিয়ে যাচ্ছে। তাই আমাদের দৈনন্দিন জীবনযাত্রাই এসেছে কিছুটা পরিবর্তন। আর সেই সাথে পরিবর্তন এসেছে আমাদের সাজে ও পোশাকেও। সব কিছুতেই পরিবর্তন আসলে আমাদের অতি প্রিয় চুলের বাহারেও পরিবর্তন আসবে না কেন? অবশ্যই আসবে। কারণ এখন সময় বুঝে চুলের বাঁধন ঠিক না করলে বাইরে গিয়ে বৃষ্টির মধ্যে পড়লে পস্তাতে হতে পারে। তাই বর্ষার সময়ে চুলের জন্য চাই বর্ষা উপযোগী বাঁধন। আসুন জেনে নেই কিভাবে চুল বাঁধবেন এই বর্ষায়।

হাত খোপাঃ লম্বা বা মাঝারি দৈর্ঘ্যের চুল যাদের তারা করতে পারেন হাত খোপা। আপনার চুলগুলোকে সুন্দর করে গুছিয়ে নিন। এবার সবটুকু চুল এক সাথে মাথার নিচের দিকে এনে সেখানে ধরে হাতের সাহায্যে খোপা করে নিন। খোপা আটকানোর জন্য ব্যবহার করতে পারেন চুলের কাটা বা ক্লিপের।

পনিটেলঃ আপনার সব টুকু চুল ভালোভাবে গুছিয়ে নিন। ভালো করে গুছিয়ে নিয়ে পিছে নিয়ে রাবার ব্যান্ড বা ক্লিপ দিয়ে আটকে নিন। হয়ে গেল পনিটেল।

এইভাবে চুল বাধার উপায়তি সব থেকে সহজ এবং করতেও সময় বেশি লাগেনা। সেই সাথে যে কোন পোশাকের সাথে দারুণভাবে মানিয়ে যায়।

লো-পনিটেলঃ সামনের কিছু চুল আলাদা করে সুন্দর করে সেট করে নিন যে কোনো একদিকে সিঁথি করে। এবার পেছনের বাকি চুল নিয়ে হাল্কা হাতে মাথার নিচের দিকে এক করে গুছিয়ে নিয়ে বেঁধে নিন রাবার ব্যান্ড বা ক্লিপ দিয়ে বেঁধে নিন। এই চুলের বাঁধনে ইচ্ছা করলে নানা ধরনের এক্সেসরিস ব্যবহার করতে পারেন।

হাই-পনিটেলঃ সামনের কিছু চুল আলাদা করে নিন। এই চুল সামনের দিক থেকে একটু পাফ করে নিয়ে বাকি চুলের সাথে ভালো করে সেট করে পেছনের দিকে টেনে নিন। এবার একটু টাইটভাবে বেঁধে নিন চুলগুলোকে। হয়ে গেল হাই পনিটেল। এই চুলের বাঁধনকে আরো জমকালো করতে চাইলে তাও করতে পারেন। দরকার শুধুমাত্র দুই একটি ফুল। সুন্দর করে ফুল কানের পাশে গুজে ক্লিপ দিয়ে আটকে নিন। হয়ে গেল জমাকালো সুন্দর সাজ আপনার চুলের।

সামনে বেণী: একটু ভিন্নভাবে এই বর্ষার দিনে নিজেকে তুলে ধরতে চাইলে করতে পারেন সামনে বেণী। মাথার সামনের দিকে বেশ কিছু চুল সমান করে আলাদা করে নিন। এবার এই চুলগুলোকে দুই ভাগ করে নিয়ে দুই দিকে থেকে কান পর্যন্ত বেণী করে ফেলুন। এবার বাকি চুলের সাথে এই দুই বেণী মিলিয়ে করতে পারেন একটি বড় বেণী, বা শুধু পনিটেল। শাড়ি পরতে চাইলে করতে পারেন খোপাও। আইডিয়া একটাই, তবে ভিন্ন ভিন্ন চুলের বাধনের সাথে মিলিয়ে নিয়ে করে আপনি হয়ে উঠতে পারেন অনন্যা।

বেণীঃ এই বর্ষার অন্যতম জনপ্রিয় চুলের বাঁধন হল এই বেণী। সালওয়ার কামিজ বা শাড়ি, ওয়েস্টার্ন বা দেশি যে কোন পোশাকের সাথেই মানিয়ে যাবে বেণী। এ জন্য প্রথমে চুল এক সাথে গুছিয়ে নিয়ে সমান তিন ভাগ করে নিন। এবার এই তিন ভাগ মিলিয়ে করে ফেলুন সুন্দর বেণী। সাধারণভাবে বেণী করলে নিচের দিকে একটু বেশি পরিমাণে চুল ছেড়ে রাখতে পারেন। অনুষ্ঠানে যেতে হলে চুলে দিয়ে নিন ফুল। ব্যাস হয়ে গেল আপনার চুলের সাজ সম্পূর্ণ।

ফ্রেঞ্চ বেণীঃ এখন সাধারণ বেণীর পাশাপাশি চলছে ফ্রেঞ্চ বেণীও। ছোট-বড় সব সাইজের চুলেই এ বেণি খুব সুন্দরভাবে করা যায়। ফ্রেঞ্চ বেণি করতে হলে প্রথমেই চুলগুলো ভালোভাবে গুছিয়ে নিন। এরপর মাথার ওপরের মাঝখানের অল্প কিছু চুল নিয়ে তা তিন ভাগে ভাগ করে নিয়ে সেই চুল দিয়েই কপালের সামনে থেকে বেণি শুরু করুন। কিছুদূর বেণি করার পর বাকি চুলগুলো থেকে অল্প কিছু চুল নিয়ে আগের বেণীর সঙ্গে মিলিয়ে বেণী করতে হবে। এভাবে বেণী করে নিয়ে ঘাড় পর্যন্ত আসার পরে বাকি চুল দিয়ে সাধারণ বেণী করে নিন। চাইলে সেই পর্যন্তও বেণী রাখতে পারেন। সালোয়ার কামিজ বা জিন্স টপ ফতুয়া যেকোনো পোশাকের সঙ্গে এ বাঁধন বেশ মানানসই হবে।

খোলা চুলঃ যেহেতু বর্ষার দিন তাই বৃষ্টিতে চুল ভেজার সম্ভাবনা থাকতেই পারে। এমন কোনো সম্ভাবনা থাকলে বাইরে যেতে পারেন চুল খুলেই। শুধু ভালো কর্রে আঁচড়ে নিন আর দিয়ে নিন ভালো কোনো হেয়ার সিরাম। ব্যাস হয়ে গেল আপনার সাজ সম্পূর্ণ। এবার বৃষ্টিতে ভিজে গেলেও নেই বেশি ঝামেলা। ঝটপট কাপড় দিয়ে মুছে শুকিয়ে নিইয়ে আঁচড়িয়ে নিন আপনার চুল। হয়ে গেলেন আপনি ঝামেলা মুক্ত। চাইলে দুই সাইডের চুল কানের পাশে নিয়ে বা মাথার পেছনে নিয়ে আটকিয়েও নিতে পারেন। এ ধরনের চুলের সাজ বর্ষার দিনের জন্য একদম সামঞ্জস্যপূর্ণ।

বেণী খোপাঃ প্রথমে বেশ কিছু চুল সামনের দিক থেকে আলদা করে নিন। এবার চাইলে এই চুল পাফ করে খোপা করতে পারেন বা চাইলে মাঝে সিঁথী করে দুই সাইডে পাফ করতে পারেন। আবার পাশে সিঁথী করে নিয়ে করতে পারে নেই ধরনের খোপা। এভাবে চুল সেট করার পরে এবার পেছনের চুল নিয়ে মাথার নিচের দিকে লম্বা বেণী করুন। চুল ছোট থাকলে পরচুল নিয়ে বেণী করুন। বেণী হয়ে গেলে বেণীটা গোল করে পেঁচিয়ে খোঁপার মতো করে গুছিয়ে নিয়ে ক্লিপ দিয়ে বা কাঁটা দিয়ে আটকে দিন। হয়ে গেল জমকালো খোপা। এই ধরনের খোপা অনুষ্ঠানের জন্য ভালো একটি স্টাইল বলেই বিবেচিত হবে।

ইসি/

 

ফ্যাশন: আরও পড়ুন

আরও