‘ওকিকু’ বছর না ঘুরতেই চুল হাঁটু ছুঁয়ে যায়!

ঢাকা, ৩ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

‘ওকিকু’ বছর না ঘুরতেই চুল হাঁটু ছুঁয়ে যায়!

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ০৫, ২০১৯

‘ওকিকু’ বছর না ঘুরতেই চুল হাঁটু ছুঁয়ে যায়!

আপনি আপনার চুল বড় করার জন্য কতো কিছুই না করে বেড়াচ্ছেন। ঘর-বাহির, পার্লার কিছুই বাদ নেই। অনেকের তো এমনো হয় যে চুল বড় না হওয়ার শোকে হেয়ার প্লান্ট করে আসছেন। তবে একজন আছেন যার চুল নিয়ে সবাই মোটামুটি হিংসে করে বেড়াচ্ছেন। যত্ন ছাড়াই বছর না ঘুরতে চুল হাঁটু ছাড়িয়ে যাচ্ছে। এমনিতে নাকি তার চুল কাঁধ পর্যন্ত। কিন্তু প্রতি বছরই তা বেড়ে হাঁটু ছুঁয়ে ফেলে। তা কেটে আবার যথাপূর্বং করে দেওয়া হলেও বছর ঘুরতে না ঘুরতে তা আবার হাঁটু ছুঁয়ে ফেলে। তবে সে কোনো জীবন্ত মেয়ে নয়। সে একটি পুতুল। তার নাম ‘ওকিকু’।

জাপানের হোক্কাইডো দ্বীপের ইওয়ামিজাওয়া শহরের মান্নেনজি মন্দিরে রাখা ওকিকু ভৌতিক পুতুল হিসেবে খ্যাত। তার কিংবদন্তি এই প্রকার— ১৯১৮ সালে এক তরুণ পুতুলটি তার দু’বছর বয়সি বোনের জন্য পুতুলটি কিনে আনে। কিন্তু বছর ঘুরতে না ঘুরতে ছোট্ট মেয়েটি মারা যায়। তার পর থেকেই দেখা যায়, পুতুলের চুল বেড়ে চলেছে জীবন্ত মানবীর মতো।

৪০ সেন্টিমিটার লম্বা ওকিকুকে দেখতে মিষ্টি জাপানি মেয়ের মতোই। তার পরনে জাপানের পরম্পরাগত পোশাক। কিন্তু তার চোখের দিকে তাকালে কেমন একটা অস্বস্তি হয় বলেই জানান দর্শকরা।

কিংবদন্তি বলে, যে শিশুটির জন্য পুতুলটি কেনা হয়েছিল, তার নামই ছিল ওকিকু। ওকিকুর মৃত্যুর পরে পুতুলটিকে তার সঙ্গে সমাহিত করা হয়নি। পরে তার ঠাঁই হয় মান্নেনজি মন্দিরে তাদের পারিবারিক অলটারে।

১৯৩৮ সালে পরিবারটি অন্যত্র চলে যায়। কিন্তু ওকিকু থেকে যায় মান্নেনজি মন্দিরেই। তাকে ঘিরে পল্লবিত হতে তাকে নানা কাহিনী। তবে, বেশির বাগ মানুষেরই বিশ্বাস, শিশু ওকিকুর আত্মাই বাস করে পুতুল ওকিকুর ভিতরে।

প্যারানর্মাল বিশেষজ্ঞরা জানান, ওকিকু ভৌতিক হতে পারে, কিন্তু ভয়ঙ্কর নয়। পশ্চিমের অ্যানাবেলের মতো সে প্রতিহিংসার আগুন বহন করে না বুকের ভিতরে।

শতবর্ষ পার হল ওকিকুর। আজও এই পুতুলকে দেখতে ভিড় জমান পর্যটকরা।

রইল ওকিকুর একটি ভিডিও।

সূত্র: newstime.jp

ইসি/

 

ফ্যাশন: আরও পড়ুন

আরও