বর্ষার জুতো কেনার কিছু টিপস

ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

বর্ষার জুতো কেনার কিছু টিপস

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:০০ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ০১, ২০১৮

বর্ষার জুতো কেনার কিছু টিপস

সারা বছরে আমাদের জুতা স্যান্ডেলের দিকে তেমন খেয়াল না থাকলেও বর্ষা আসলে কিন্তু এটা নিয়ে মাথা ঘামাতেই হয়। কারণ সারা বছর যেকোনো জুতা স্যান্ডেল পরে ফ্যাশন করলেও বর্ষায় সেটা সম্ভব হয় না। তাই বর্ষার জন্য চাই উপযোগী জুতা-স্যান্ডেল। আর তাই বর্ষায় জুতা কেনার আগে যদি মনে রাখেন বিশেষ কিছু টিপস, তাহলে এই বর্ষায় নিস্তার পেতে পারেন পায়ে ফোস্কা বা যেকোনো রকম সংক্রমণ থেকে। টেকসই হবে জুতাও। আসুন তাহলে জেনে নেই টিপসগুলো।

সারা বছরের জুতা কেনা আর বর্ষার জুতা বাছাইয়ে কিন্তু খানিকটা পার্থক্য আছে।

ঝড়-বৃষ্টির পানির সাথে যুঝতে পারবে এমন জুতো বাছার পাশাপাশি বর্ষার জুতোর যত্নও কিন্তু হবে আলাদা। ভেঙে ফেলতে হবে কিছু পুরনো ধারণা।

বর্ষায় মোজা পরুন। হ্যাঁ, ঠিকই পড়ছেন। এ সময় পায়ে বৃষ্টির পানি তো লাগেই বরং দীর্ঘক্ষণ সে পানি থেকে যায় পায়ে। বৃষ্টির পানি, রাস্তার কাদায় থাকা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ ঘটাতেই পারে। অতএব, মোজা ছাড়া জুতো একেবারে নয়।

কিন্তু মোজা তো ভিজবে। তাহলে উপায়? ভিজুক, বৃষ্টি হলে তো ভিজবেই তাই সঙ্গে রাখুন শুকনো মোজাও। গন্তব্যে পৌঁছে ছেড়ে ফেলুন ভিজে মোজা। ফের বেড়ানোর সময় পরুন সঙ্গে রাখা শুকনোটি। পারলে মোজা শুকনোর উপায় থাকলে তার সদ্ব্যবহার করুন। এছাড়া সংক্রমণ এড়ানোর সহজ কোনো উপায় নেই কিন্তু।

বর্ষায় জুতো কেনার সময় কিন্তু আরো কিছু বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে:

এড়িয়ে চলুন প্লাস্টিকের জুতো। চামড়ায় অ্যালার্জি বা প্রদাহ তৈরি করে প্লাস্টিক। তাই বর্ষার জুতো মানেই পলিফাইবার, প্লাস্টিক বা রাবারের জুতো পরার অভ্যাস থেকে দূরে থাকুন।

রেক্সিন বা ভালোভাবে প্রক্রিয়াজাত না হওয়া চামড়া থেকে তৈরি কম দামি জুতো কিনবেন না।

সিন্থেটিক চামড়া এড়িয়ে জুতোর র‌্যাকে রাখুন ওয়াটারপ্রুফ দামি চামড়ার জুতো। আজকাল নাম করা জুতো প্রস্তুতকারী সংস্থায় সহজেই পাবেন এমন জুতো। দাম একটু বেশি হলেও চেষ্টা করুন এমন জুতোই কিনতে।

গাঢ় রঙে অনেকের অ্যালার্জি হয়। কারণ গাঢ় রঙের রাসায়নিক উপাদান চামড়ায় সহ্য হয় না অনেকের। তেমন হলে এড়িয়ে চলুন সেসব রঙ।

কিন্তু যিনি কিনতে পারবেন না এমন জুতো? সমাধান আছে তাদের জন্যও। কম দামি জুতো কিনলে তেল বা ক্রিমে চুবিয়ে রাখুন তা এক রাত। জুতো পরার আগে পায়েও মেখে নিন তেল। তারপর পানিতে ধুয়ে নরম কপড়ে পা মুছে পড়ুন জুতো। ফোস্কার সম্ভাবনা কমবে। তেল থাকায় পানিও বসে থাকবে না বেশিক্ষণ।

তবে মোজা পরতে হবে এক্ষেত্রেও। এতেই আরামে থাকবে আপনার পা। কমবে সংক্রমণের আশঙ্কাও।   

ইসি/