পূজার আগেই ত্বক হবে নিখুঁত

ঢাকা, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

পূজার আগেই ত্বক হবে নিখুঁত

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৪৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৯

পূজার আগেই ত্বক হবে নিখুঁত

এক দিকে রান্নাবান্না অন্য দিকে অফিস বা ঘরকন্নার আরো হাজারো ঝঞ্ঝাট। দিনভর পরিশ্রম করে চেহারার দিকে আলাদা করে সময় দেওয়ার ফুরসত মেলে কই? চোখে-মুখে কেমন একটা কালচে ছোপ! এ দিকে খুঁটি পুজো শেষে প্যান্ডেলের তোড়জোড়। তার মানে কেনাকাটা থেকে শুরু করে ঘর সাজানো, নিজেকে সাজানো সব কিছুরই কাউন্ট ডাউন শুরু।

তাই পূজার সময় ঝকঝকে হতে চাইলে এখনই একটু সময় বার করে নিতে হবে বইকি। তবে খুব বেশি পরিশ্রমের দরকার নেই, মাসান্তে ঘন ঘন পার্লারে ছোটারও দরকার নেই। রান্নাঘরে হাতের কাছে থাকা কিছু উপকরণ দিয়েই ত্বক হয়ে উঠবে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল।

কোন কোন উপাদান দিয়ে কী কী ভাবে ত্বকের পরিচর্যা করবেন জানেন? নানা ক্ষেত্রে দাওয়াই কিন্তু ভিন্ন। কেমন সে সব, জেনে নিন।

আদা: সবার রান্নাঘরেই আদা থাকে। রান্নাকে স্বাদু করার পাশাপাশি আদা ত্বকের হারানো জেল্লা ফিরিয়ে আনতে সিদ্ধহস্ত। আমাদের ত্বকের প্রধান শত্রু বোগুনি আলো মানে আলট্রাভায়োলেট রশ্মি। এর প্রভাবে একদিকে ত্বকে কালচে ছোপ পড়ে। অন্য দিকে অকালে বলিরেখা পড়ার গতি বাড়িয়ে দেয়। এসবেরই সমাধান আছে আদায়। টাটকা আদার রস এবং শুকনো গুঁড়ো দুইই ত্বকের ক্ষতিপূরণ করতে সিদ্ধহস্ত। এর অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ত্বকের জন্য এক অত্যন্ত প্রয়োজনীয় টোনার। ত্বকের দাগ ছোপ এমনকি কাটা দাগও হালকা করে দিতে পারে। একচামচ টাটকা আদার রসের সঙ্গে একচামচ পাতিলেবুর রস ও মধু মিশিয়ে মুখে, গলায়, হাতে লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন। ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দু তিন দিন আদার রস বা শুকনো আদার গুঁড়োর সঙ্গে অল্প ছোলার বেসন, দুধ ও মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে মুখে ও গলায় লাগিয়ে ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহ দুয়েকের মধ্যেই ত্বকের ঝকঝকে ভাব ফিরে আসবে।

ভাত: ভাত খাওয়ার আগে অল্প ভাত সরিয়ে রাখুন। ভাতের সঙ্গে পাতিলেবুর রস, কফি পাউডার আর চিনি মিশিয়ে মিক্সিতে পেস্ট করে নিন। মুখে হাতে গলায় লাগিয়ে রাখুন ১০–১৫ মিনিট। অল্প পানি হাত করে স্ক্রাব করে ধুয়ে ফেলুন। এর পর ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। বলিরেখা পড়বে না, আর ম্যাড়ম্যাড়ে ভাব কেটে গিয়ে উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

ভাতের ফ্যান: ফ্যান ঠাণ্ডা করে অল্প মধু আর সামান্য লেবুর রস দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। ব্রাশে করে মুখে গলায় লাগিয়ে ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। বাকিটা ফ্রিজে রেখে দিন। ৩/৪ দিন ব্যবহার করতে পারবেন। ত্বকের রুক্ষতা কেটে গিয়ে মোলায়েম হবে।

গোলমরিচ: এটি শুধু যে খাবারের স্বাদ বাড়ায় তা নয়, ত্বক ও চুলের পাশাপাশি মেটাবলিজিম বাড়িয়ে ওজন কমাতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেয়। ব্রণ ও বলিরেখা হঠিয়ে দিতে পারে। সপ্তাহে একদিন গোলমরিচ দিয়ে প্যাক বানিয়ে নিন। গোলমরিচ গুঁড়ো করে দুধ ও বেসন মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে মুখে গলায় হাতে লাগিয়ে ১০ -১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে নিন।

আলু: মেদের ভয়ে খান না? বেশ করেন। তবে মাখতে তো দোষ নেই। অল্প খেলেও দোষের নয়, বরং সেদ্ধ করে পানি ফেলে রান্না করলে এতে ওজন বাড়ার কোনো সুযোগই নেই। আলু লাগতে পারে রূপসজ্জাতেও। টুকরো করে কেটে ব্লেন্ডারে দিয়ে আলু ব্লেন্ড করে নিন। আলুর এই পেস্ট মুখসহ শরীরের অনাবৃত অংশে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নিন। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে দেখুন কেমন গ্ল্যামার বেড়েছে!

পাকা পেঁপে: এই ফল খেতে ভালোই লাগে। পেঁপের খোসা ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করে নিয়ে মুখে হাতে গলায় লাগিয়ে রাখুন। কিছু ক্ষণ পরে ধুয়ে নিন। ত্বক হবে ঝকঝকে।

তবে এ সব রূপচর্চার পাশাপাশি নির্দিষ্ট সময়ে পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। রোজ ৮–১০ গ্লাস পানি খান অবশ্যই। আর ৭–৮ ঘন্টা ঘুমও ত্বককে সুস্থ রাখার জন্য জরুরি। 

ইসি/

 

রুপচর্চা: আরও পড়ুন

আরও