বর্ষায় তৈলাক্ত ত্বকে চাই বাড়তি যত্ন

ঢাকা, ১৪ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

বর্ষায় তৈলাক্ত ত্বকে চাই বাড়তি যত্ন

পরিবর্তন ডেস্ক ৮:৩৯ পূর্বাহ্ণ, জুন ১১, ২০১৯

বর্ষায় তৈলাক্ত ত্বকে চাই বাড়তি যত্ন

বর্ষা মানেই ত্বক, চুল, হাত পায়ের আলাদা আলাদা সমস্যা। এমন কি আপনার ত্বক বুঝেও তৈরি হয় নানা সমস্যা। বর্ষার বৃষ্টি যে আর্দ্রতা নিয়ে আসে, তা শুষ্ক ত্বকের জন্য যেমন খারাপ। আবার তৈলাক্ত ত্বকের জন্যও খারাপ। এমন আবহাওয়া বেশি খারাপ তৈলাক্ত ত্বকের জন্য। তবে এ ঋতুতে ত্বকের যত্নের রুটিনে কিছুটা পরিবর্তন আনলে সজীব রাখা সম্ভব। আসুন জেনে নেই বর্ষায় তৈলাক্ত ত্বকের যত্নের টিপস।

আর্দ্রতার কারণে ত্বক ক্রমাগত ভিজতে ও শুকাতে থাকে। ফলে ত্বক পানিহীন হয়ে পড়ে। যদি মুখ ঘামে ভিজে যায় তাহলে ভেজা টিস্যু দিয়ে মুছে ফেলুন এবং শুষ্ক মনে হলে ময়েশ্চারাইজার লাগান। মুখ ভালোভাবে ধুয়ে নিন এবং ৫ থেকে ১০ মিনিট একটি বরফের টুকরা মুখে ঘষুন।

ত্বকের তৈলাক্ত ভাব অর্থাৎ অতিরিক্ত তেল দূর করার জন্য দিনে ২ থেকে ৩ বার মুখ ক্লিনজার দিয়ে পরিষ্কার করুন। তবে প্রতিদিন দুই থেকে তিনবারের বেশি এটি করা উচিত নয়। তিনবারের বেশি মুখ পরিষ্কারে ত্বকে জ্বালা হতে পারে এবং ত্বকে তেলের পরিমাণ বেড়ে পূর্বের থেকেও বেশি তৈলাক্ত হয়ে যেতে পারে।

যেকোনো আবহাওয়াতে ভারী ক্লিনজিং ক্রিম ত্বকের জন্য সমস্যা সৃষ্টি করে। মুখ পরিষ্কারের সময় গরম পানি ব্যবহার করা ভাল। কেন না গরম পানি ব্যবহারে ত্বকের তৈলাক্ততা দ্রুত বিলীন হয়।

প্রতিদিন ১০টি নিমপাতা সিদ্ধ করে সেই পানি পান করুন। ত্বককে সম্পূর্ণরূপে তেলমুক্ত রাখুন।

এছাড়াও ঘরোয়া উপায়ে কিছু উপাদান দিয়ে ঘরেই নিতে পারেন ত্বকের যত্ন। আসুন তাহলে দেখে নিন কীভাবে এবং কী কী দিয়ে ত্বকের যত্ন নিবেন।

চন্দন:

তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে ব্যবহার করতে পারেন চন্দনের ফেসপ্যাক। চন্দন গুঁড়া গোলাপজলের সঙ্গে মিশিয়ে তৈরি করুন পেস্ট। মুখ ও গলার ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের অতিরিক্ত তেল চলে যাবে।

লেবু:

লেবুর সাইট্রিক অ্যাসিড ত্বকের তেলতেলে ভাব কমায়। লেবু সরাসরি লাগাতে পারেন ত্বকে। আবার ফেসপ্যাকের সঙ্গে মিশিয়েও ব্যবহার করতে পারেন। তবে আগে নিশ্চিত হয়ে নিন লেবুতে আপনার অ্যালার্জি আছে কিনা। 

শসা:

শসার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রাকৃতিকভাবে ত্বক পরিস্কার করে। বন্ধ হওয়া লোমকূপ থেকে মুক্তি দেয় এটি। ফলে ত্বকে অতিরিক্ত তেল জমতে পারে না। শসা পেস্ট করে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে লাগান। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন।

দুধ:

কাঁচা দুধ ত্বকের তৈলাক্ত ভাব কমায়। পাশাপাশি উজ্জ্বল ও কোমল করে ত্বক। দুধে তুলা ভিজিয়ে চেপে চেপে লাগান ত্বকে। ৩০ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

পেঁপে:

ত্বকের মরা চামড়া দূর করে ত্বক উজ্জ্বল করে পাকা পেঁপে। পেঁপের টুকরা চটকে ত্বকে লাগান। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন। কমে যাবে ত্বকের তেলতেলে ভাব।

দই:

দইয়ে থাকা ভিটামিন-ডি ও ক্যালসিয়াম দূর করে ত্বকের অরিতিক্ত তেল। দইয়ের সঙ্গে সামান্য মধু মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন গোসলের আগে। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন ত্বক।

কিছু টিপস:

এ সময় প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন।

নিয়ম করে মৌসুমি ফল খান এবং যে পোশাক পরবেন তা যেন অবশ্যই শুকনা হয় বা থাকে সেদিকে খেয়াল রাখবেন।

ব্যাগে সব সময় এক্সট্রা পলিথিন রাখুন। তাহলে বৃষ্টি শুরু হলে আপনার ব্যাগ এবং মূল্যবান সামগ্রী গুছিয়ে ও নিরাপদে রাখতে পারবেন।

ইসি/

 

রুপচর্চা: আরও পড়ুন

আরও