শীতেও যাদের ব্রণ হয় তাদের জন্য সহজ সমাধান

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

শীতেও যাদের ব্রণ হয় তাদের জন্য সহজ সমাধান

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:৫৮ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ০৬, ২০১৮

শীতেও যাদের ব্রণ হয় তাদের জন্য সহজ সমাধান

শীতকালটা অনেকেই খুব পছন্দ করেন। আর পছন্দ করার পেছনে কারণও আছে অনেক। শীতের হিম হিম হাওয়ায় মেকআপটা একদম পারফেক্ট থাকে। সেই সঙ্গে ঘেমে গিয়ে চুলটাও নষ্ট হওয়ার ভয় থাকে না। ত্বকে তৈলাক্ত ভাবের যন্ত্রণা থেকেও অনেকটাই মুক্তি পাওয়া যায়। অন্যদিকে এই দারুণ আবহাওয়াতেও যদি আপনার ত্বকে ব্রণের উৎপাত দেখা দেয় তাহলে নিশ্চয়ই মেজাজটা বিগড়ে যাওয়ারই কথা। খুব বেশি শুষ্ক ত্বকে শীতকালে অনেকেরই ব্রণের উপদ্রব দেখা দেয়। আর তখন বেশ বিপাকে পড়তে হয়। কারণ এসময়ে ঠিক কীভাবে ত্বকের যত্নটা নেওয়া উচিত এটা বুঝতে হিমসিম খেয়ে যান অনেকেই। এই শীতে ব্রণের উপদ্রব থেকে মুক্তি পাওয়ার খুব সহজ উপায় জেনে নেওয়া যাক।

ফেসওয়াশের সঠিক ব্যবহার: শীতকালে ব্রণের উপদ্রব থেকে বাঁচার জন্য ত্বকটাকে কীভাবে পরিষ্কার করছেন সেদিকে একটু খেয়াল রাখুন। শীতে ভুলেও সাধারণ বডি ওয়াশ কিংবা গায়ে মাখার সাবান দিয়ে মুখমণ্ডল ধোবেন না। শীতে ত্বকটাকে পরিষ্কার করার জন্য ভালো ব্র্যান্ডের অয়েল ফ্রি ক্লিনজার ব্যবহার করতে পারেন। গরম পানি দিয়ে ভুলেও ত্বক ধোবেন না। সবসময়ে মুখ ধোয়ার জন্য ঠাণ্ডা পানি ব্যবহার করবেন। ক্ষারমুক্ত ভালো ফেসওয়াশ দিয়েও ত্বক পরিষ্কার করতে পারেন সকালে এবং রাতে।

ময়েশ্চারাইজিং: ত্বককে ব্রণের উপদ্রব থেকে রক্ষা করতে আরেকটি ব্যাপারে লক্ষ্য রাখতে হবে আপনাকে। আর তা হলো আপনার ত্বকটাকে কীভাবে ময়েশ্চারাইজ করছেন। অনেকেই ব্রণ উঠেছে বলে ত্বক ময়েশ্চারাইজ করতেও ভয় পায়। ফলে ত্বকটা আরো শুষ্ক হয়ে ওঠে এবং ব্রণের সমস্যাও কমে না। হেভি ক্রিম ব্যবহার না করে হালকা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার সবচাইতে ভালো বন্ধু হতে পারে বেবি ক্রিম। ছোট শিশুদের ত্বকের জন্য তৈরি করা হয় বলে ক্ষতিকর কোনো কেমিক্যাল থাকে না এগুলোতে। ফলে আপনার ব্রণের সমস্যাটাকে আরো বাড়িয়ে দেয়ার সম্ভাবনা থাকে না এই প্রোডাক্টগুলোতে।

প্রচুর পানি পান করুন: শীতকালে অনেকেরই বদঅভ্যাস হলো পানি কম খাওয়া। গ্রীষ্মের তাপে অতিষ্ট হয়ে কিছুক্ষণ পর পর পানি খাওয়া হলেও শীতে পানি খাওয়ার কথা বেমালুম ভুলে যান বেশিরভাগ মানুষ। আর কম পানি পানের ফলেই শীতে দেখা দেয় ব্রণের উপদ্রব। তাই শীতেও প্রচুর পানি পান করুন। অন্তত দিনে ৮ গ্লাস পানি অবশ্যই পান করা উচিত ত্বক এবং শরীর ভালো রাখার জন্য।

বালিশের কভার পরিষ্কার রাখুন: ত্বকে ব্রণের সমস্যা হওয়ার অনেক কারণের মধ্যে অন্যতম একটি হলো বালিশের কভার পরিষ্কার না রাখা। চুলের ধুলোময়লা বালিশের কভারে লেগে থাকে এবং তা আপনার ত্বকেও লেগে যায়। ফলে ত্বকে ব্রণের সমস্যা দেখা দেয়। তাই সপ্তাহে অন্তত একবার বালিশের কভারটা বদলে ফেলা উচিত।

মুখের ত্বকে হাত লাগাবেন না: শীতে আপনার হাত কতটুকু ঠাণ্ডা হয়ে আছে তা অনুভব করার জন্য কিংবা সামান্য উষ্ণতা পেতে অনেকেই হাতগুলোকে গালে লাগিয়ে রাখেন। এতে আপনার হাত থেকে জীবাণু ত্বকে লেগে যায় এবং তা থেকে বেড়ে যায় ব্রণের উপদ্রব। তাই এই অভ্যাসটা ত্যাগ করার চেষ্টা করা উচিত।

ইসি/