ভালোবাসার গোলাপে নিন ত্বকের যত্ন

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ | ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ভালোবাসার গোলাপে নিন ত্বকের যত্ন

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮

ভালোবাসার গোলাপে নিন ত্বকের যত্ন

১৪ই ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। আজ আপনার পছন্দের মানুষ অথবা প্রিয় বন্ধুর কাছ থেকে নিশ্চই পাবেন এক তোড়া গোলাপ? এতো ভালোবাসায় পাওয়া সুবাসিত গোলাপগুলো বাসায় নিয়ে কি করবেন? দুই দিন ফ্লাওয়ার ভাসে সাজিয়ে রেখে গোলাপের শেষ ঠিকানা হবে ময়লার বিন। তাই না? এটা করা মোটেও ঠিক হবে না। আপনি চাইলে এক ভালোবাসাকে কাজে লাগাতে পারেন অন্য ভালোবাসায়। কীভাবে? খুব সহজ, ভালোবাসা দিবসে পাওয়া গোলাপগুলোর ভাগ দিন ত্বকের যত্নে। এটা তো আমরা সবাই জানি, রুপচর্চায় গোলাপের কতো ব্যবহার রয়েছে। আসুন আজ আমরা সেটাই জেনে নেই কীভাবে ত্বকের যত্নে ব্যবহার করবেন গোলাপ ফুল।

গোলাপ আমাদের ত্বকের জন্য অনেক ভালো একটি উপাদান। তাই গোলাপ ব্যবহার করে রূপচর্চা করা অনেক নিরাপদ ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন।

অলিভ অয়েল ২ টেবিল চামচ ও ১ চা চামচ গোলাপের রস মিশিয়ে মুখে লাগান। এটি ত্বকে ময়েশ্চারাইজার এর কাজ করবে।

রোদে বের হওয়ার আগে গোলাপের রস, আমন্ড অয়েল ও শসার রস মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন। এতে ত্বক রোদে পুড়ে যাওয়া হতে অনেকটাই বাঁচবে।

স্কিন শুষ্ক ও অনুজ্জ্বল হলে গোলাপের পেস্টের সঙ্গে মধু মিশিয়ে লাগাতে হবে। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে নিতে হবে। নিয়মিত করলে তকের রঙ উজ্জ্বল হবে। সে সঙ্গে কোমল, মসৃণ ও সজীব হবে।

বেসনের সঙ্গে গোলাপ বাটা মিশিয়ে মুখে লাগাতে হবে। ১০-১৫ মিনিট রেখে মুখ ধুতে হবে। নিয়মিত করলে ব্রণ ও ব্রণের দাগ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

গোলাপের শীতল ক্ষমতা আছে। তাই গরমে রোদ থেকে এসেই ফ্রিজে রাখা গোলাপ ভেজানো পানি মুখে দিতে হবে অথবা এই পানি বরফ করে রেখে তা মুখে ঘষতে হবে। এতে স্কিনের জ্বালাপোড়া ভাব কমে যাবে এবং স্কিন শীতল হবে ও পোড়া ভাব উঠে যাবে।

গোলাপ পাপড়ি কচলে সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। পরদিন ছেঁকে অল্প কর্পূর মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। মুখ ধোয়ার পর টোনার হিসেবে এ পানি লাগাবেন।

ব্রণের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে গোলাপের পাপড়ি। ব্রণের স্থানগুলোতে গোলাপের পাপড়ি বেটে লাগাতে পারেন।

চোখের নিচের কালি দূর করতে ও গোলাপের পাপড়ির ভূমিকা বেশ কার্যকরী। একটি পাত্রে কিছু সময় ধরে গোলাপ ভিজিয়ে রাখুন তারপর তুলা দিয়ে সেই পানি চোখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট চোখ বন্ধ করে রাখুন। এটি নিয়মিত করতে পারেন ডার্ক সার্কেল দূর করতে।

ঠোঁটের যত্নে লিপবামের চেয়েও কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে গোলাপের পাপড়ি। গোলাপের পাপড়ি বেটে তার সাথে দুধ আর মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন এবং তুলা দিয়ে ঠোঁটে লাগিয়ে রেখে দিন ১০ মিনিট।এতে ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হয় ও গোলাপি আভা তৈরি হয়। গোলাপের পাপড়ির রস ও তুলসি পাতার রস মিশিয়ে ও ঠোঁটে ব্যবহার করতে পারেন।

সতর্কতা:
. যাদের ফুলে এলার্জি আছে তার গোলাপের প্যাক ব্যবহার না করাই ভালো।
. প্যাক ব্যবহার করার আগে কানের পেছনে একটু লাগিয়ে নিন। যদি না জ্বলে বা না চুলকায় তাহলে ব্যবহার করা নিরাপদ।

ইসি/