প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি করুন ‘ড্রাই ফেস ওয়াশ’

ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫

প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি করুন ‘ড্রাই ফেস ওয়াশ’

পরিবর্তন ডেস্ক ১:২৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮

print
প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি করুন ‘ড্রাই ফেস ওয়াশ’

ফেস ওয়াশের নাম করে বাজার থেকে সারা বছর কতো কিছুই না কিনে আনেন। কিন্তু ফলাফল মিলালে দেখা যায় আসলে আপনি পয়সা খরচ করে কিছু ব্র্যান্ড কিনেছেন। কিন্তু কোনো উপকার কিনতে পারেননি। তো এখন কি করবেন? মুখ ধোঁয়া ছেড়ে দিবেন? এটা তো করা যাবে না। তাহলে উপায়? উপায় অবশ্যই আছে, যদি আপনাকে সুট না করে তাহলে বাজার থেকে আর ফেস ওয়াশ কেনার দরকার নেই। তার চেয়ে ভালো বাড়িতে নিজেই তৈরি করে নিন ‘ড্রাই ফেস ওয়াশ’। আর এটা আপনি তৈরি করতে পারবেন শতভাগ প্রাকৃতিক উপায়ে ও কম খরচে। আসুন তাহলে জেনে নেই কয়েকটি ‘ড্রাই ফেস ওয়াশ’ তৈরির ফর্মুলা।

উপকরণ:

বেসন দেড় কাপ।

আতপ চালের গুঁড়া ১/৪ কাপ। (মিহি গুঁড়া)

মিল্ক পাউডার ১/৪ কা।

হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ।

গ্লুকোজ পাউডার ১/৮ কাপ।

লাল আটা বা ময়দা ১/২ কা।

কাঠ বাদাম গুঁড়া ২ টেবিল চামচ।

নিমপাতা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ (যাদের ব্রণের সমস্যা আছে নিমপাতা শুধু তারা ব্যবহার করবেন)।

পরিষ্কার এয়ার টাইট পাত্র।


যেভাবে তৈরি করবেন:

সব উপকরণ নিয়ে আলাদা আলাদা পাত্রে রাখুন। (সব উপাদান যেন মিহি ও পরিষ্কার হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন।)

তারপর একটা বড় পাত্রে সবগুলো উপকরণ ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

তারপর এয়ার টাইট পাত্রে সংগ্রহ করুন। খেয়াল রাখবেন বাতাস ও পানির সংস্পর্শে যেন না আসে, শুকনো জায়াগার রেখে দিন।

প্রতিদিন মুখ ধোয়ার সময় পানি/গোলাপ জল (তৈলাক্ত ত্বক হলে) অথবা কাঁচা দুধ (শুষ্ক ত্বক হলে) দিয়ে গুলিয়ে ফেস ওয়াশের মতো ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন।


কিছু টিপস:

এক মাসের মতো ভালো থাকবে এ ফেসওয়াশ।

আপনি চাইলে বেশি করে বানিয়ে রেফ্রিজারেটরেও রেখে দিতে পারেন।

রেফ্রিজারেটরে ৬ মাসেরও বেশি সময় ভালো থাকবে

তবে বেশিদিন না রেখে যদি এক দিন তৈরি করে এক সপ্তাহের মধ্যে শেষ করতে পারেন সেটাতে বেশি ভালো ফল পাবেন।

পাত্র থেকে ‘ড্রাই ফেস ওয়াশ’ নেয়ার সময় হাতের বদলে কাঠের চামচ ব্যবহার করুন।

তথ্য: সায়মা জামান, বিউটি এক্সপার্ট, সায়মা বিউটি পার্লার।

ইসি/

 
.


আলোচিত সংবাদ