পরবর্তী ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বরিস জনসনকে পছন্দ ট্রাম্পের

ঢাকা, ২৭ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

পরবর্তী ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বরিস জনসনকে পছন্দ ট্রাম্পের

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:২৯ অপরাহ্ণ, জুন ০১, ২০১৯

পরবর্তী ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বরিস জনসনকে পছন্দ ট্রাম্পের

টেরিজা মে'র পরিবর্তে ব্রিটেনের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন ‘অত্যন্ত চমৎকার’ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সোমবার থেকে ট্রাম্প ব্রিটেন সফর শুরুর আগে শনিবার এই মন্তব্য করেন। ওই সফরে তিনি বিদাই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মে'র সঙ্গে বৈঠকে বসবেন।

টেরিজা মে আগামী ৭ জুন পদত্যাগ করবেন। ব্রেক্সিট বা ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করতে না পারায় প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়তে হচ্ছে তাকে।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড দ্য সান ট্রাম্পের কাছে প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামা ১২ জন প্রার্থীর বিষয়ে মতামত জানতে চাইলে ট্রাম্প বলেন, ‘আমার মনে হয় বরিস জনসন খুব ভালো করবেন। আমার মতে তিনি অত্যন্ত চমৎকার ওই পদের জন্য।’

‘আমি উনাকে সব সময়ই পছন্দ করি। আমি জানি না তিনি নির্বাচিত হবেন কিনা, কিন্তু আমার মতে তিনি খুব ভালো মানুষ, অত্যন্ত মেধাবী একটা লোক,’ যোগ করেন তিনি।

ট্রাম্প আরও বলেন, কনজারভেটিভ দলের একাধিক প্রার্থী তার সমর্থন চেয়েছেন। তবে তাদের নাম বলেননি তিনি।

ব্রেক্সিটের অন্যতম সমর্থক বরিস জনসন ইতোমধ্যেই ঘোষণা দিয়েছেন, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে ‘কোনও চুক্তি করা যাক বা না যাক’, তিনি ব্রিটেনকে এই সংস্থা থেকে বের করে আনতে প্রস্তুত আছেন।

সানকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প টেরিজা মে'র কৌশলের সমালোচনার পুনরাবৃত্তি করে বলেন, উনি ইইউয়ের হাতে ‘সব তাস দিয়ে দিয়েছিলেন।’

‘একটা পক্ষই যদি সব সুবিধা পায় তাহলে খেলা খুব মুশকিল। আমি টেরিজাকে বলেছিলাম, আপনার উচিৎ নিজের গোলাবারুদ জোগাড় করা,’ বলেন ট্রাম্প।

টেরিজা গত নভেম্বর মাসে ইইউ ত্যাগের একটি চুক্তি প্রস্তুত করলেও তা প্রত্যাখ্যান করে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট। আগামী ৩১ অক্টোবরের ব্রেক্সিটের চূড়ান্ত তারিখ নির্ধারিত হওয়ায় তাকে পদত্যাগ করতে হয়।

এমআর/এসবি

 

ইউরোপ: আরও পড়ুন

আরও