প্রসাধনী যেভাবে চোখের ভ্রম ঘটায়

ঢাকা, ১৫ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

প্রসাধনী যেভাবে চোখের ভ্রম ঘটায়

পরিবতর্ন ডেস্ক ৪:০০ অপরাহ্ণ, মে ০৯, ২০১৯

প্রসাধনী যেভাবে চোখের ভ্রম ঘটায়

ইটালির মেক-আপ আর্টিস্ট লুকা লুচে অপটিক্যাল ইলিউশন বা দৃষ্টিভ্রম ঘটাতে বেশ পারদর্শী৷ তিনি তার নিজের চেহারা এবং মাথাকে জ্যামিতিক বিভিন্ন আকার যেমন দিতে পারেন, তেমনি পারেন মাথায় সিঁড়ি গড়তে কিংবা ফাটল সৃষ্টি করতে৷ তবে সেগুলো দেখতে তেমন ভীতিকর মনে হয় না৷

অপটিক্যাল ইলিউশন বা দৃষ্টিভ্রম সৃষ্টিতে মাস্টার লুকা লুচে৷ আর সেটা তৈরিতে ব্রাশ এবং মেকআপ বা প্রসাধনী সামগ্রীর বাইরে অন্য কিছু দরকার নেই তার৷ এই মেকআপ আর্টিস্ট তার খদ্দেরদের দেখতে সতেজ এবং প্রাকৃতিক করে তুললেও নিজের চেহারা বিকৃত করে ত্রিমাত্রিক দৃষ্টিভ্রম সৃষ্টিতে ভালোবাসেন৷

লুকা লুচে এই বিষয়ে বলেন, ‘সেই ছোটবেলা থেকেই আঁকতে ভালোবাসি আমি৷ যেহেতু আমি ত্রিমাত্রিকতা এবং মেকআপের ব্যাপারে উৎসাহী, তাই দুটিকে এক জায়গায় নিয়ে এসেছি৷ আর তার ফলাফল কী হচ্ছে, তা আপনি এখন দেখছেন৷’

জার্মান গণমাধ্যম ডয়চে ভেলে বলছে, মিলানে এক নাপিতের দোকানে লুকা লুচে তার ত্রিমাত্রিক মেকআপ করার কৌশল আমাদের দেখিয়েছেন৷ চুল ধোয়া, কাটা কিংবা শুকানোর বদলে নিজের মাথা দুই ভাগ করতে বেশি আগ্রহী তিনি৷ লুচে বলেন, ‘বিষয়টি ছবির ওপর নির্ভর করে৷ এটা করতে আমার এক থেকে দুই ঘণ্টা সময় লাগে৷ প্রথমে আমি অ্যাঙ্গেল ঠিক করি৷ কারণ ত্রিমাত্রিক আবহ তৈরি করতে পার্সপেকটিভ গুরুত্বপূর্ণ৷’

ত্রিমাত্রিক আবহ তৈরি করতে লুচে প্রথমে তার মাথায় সেটির এক বিকৃত সংস্করণ আঁকেন৷ শুরুতে সেটা দেখে কী আঁকা হচ্ছে বোঝা বেশ দুরুহ ব্যাপার৷ ত্রিমাত্রিক মেকআপের পর সেগুলো ইন্সটাগ্রামে প্রকাশ করেন লুকা লুচে৷ আড়াই লাখের বেশি অনুসারী তার সেসব ছবি এবং ভিডিও উপভোগ করেন৷

২০১৪ সালে নিজের হাতের তালুতে ত্রিমাত্রিক দৃষ্টিভ্রম ঘটায় এমন ছবি আঁকতে শুরু করেন লুচে৷ সুন্দর বিভিন্ন প্রাণী থেকে শুরু করে বিমূর্ত বিভিন্ন চিত্রকলা এঁকে তিনি অনেক মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণে সক্ষম হন৷ তাঁর অনেক ভিডিও দুই লাখের বেশি বার দেখা হয়েছে৷

মেক আপ আর্টিস্ট লুকা লুচে বলেন, ‘মানুষ তাদের চেহারায় পরিবর্তন আনতে পছন্দ করেন৷ এতে তারা এমন এক পরিবর্তন অনুভব করেন যা তারা আগে বোঝেননি৷ নতুন কিছু দেখা তাদের অনেকের কাছেই আনন্দের ব্যাপার৷ এটা হচ্ছে উদ্ভাবন এবং আমার মনে হয় এ জন্যই তারা এটাকে এত পছন্দ করেন৷’

আরপি

 

ইউরোপ: আরও পড়ুন

আরও