মসজিদে হামলা: ছেলের দাফন দেখতে গিয়ে মায়ের মৃত্যু

ঢাকা, শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯ | ১৩ বৈশাখ ১৪২৬

মসজিদে হামলা: ছেলের দাফন দেখতে গিয়ে মায়ের মৃত্যু

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:২২ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০১৯

মসজিদে হামলা: ছেলের দাফন দেখতে গিয়ে মায়ের মৃত্যু

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫০ জনের একজন হলেন কামাল দারাইশ। গত ১৫ মার্চ আল নুর মসজিদে হামলায় অন্যদের সঙ্গে মারা যান ৩৮ বছর বয়সী এ ফিলিস্তিনি। হামলার এক সপ্তাহ পর গতকাল শুক্রবার নিহতদের লাশ দাফন করা হয়।

ছেলেকে শেষবারের মতো দেখতে এদিন (শুক্রবার) নিউজিল্যান্ডে যান ৬৫ বছর বয়সী মা সৌদ আব্দেলফাত্তাহ মাইসেন আদওয়ান। কিন্তু শনিবার সকালে তিনি হার্ট অ্যাটাকে মারা যান।

অস্ট্রেলিয়ার সিডনিভিত্তিক জর্ডান দূতাবাসের এক কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বলে খবর দিয়েছে নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড।

প্রসঙ্গত, দারাইশরা ফিলিস্তিনি হলেও তারা জর্ডানে থাকেন। সেখান থেকেই গত বছর নিউজিল্যান্ডে যান তিনি। দেশটিতে আগে থেকেই ছিলেন তার বড় ভাই। তিন সন্তানের জনক দারাইশ ডেইরি ফার্মে কাজ করতেন। তার স্ত্রী ও সন্তানরাও নিউজিল্যান্ডে যাওয়ার জন্য ভিসার আবেদন করেছিলেন।

দারাইশদের পরিবারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ইয়াসের মোহাম্মাদ বলেন, ‘তিনি (দারাইশের মা) দাফন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গতকাল নিউজিল্যান্ডে আসেন। সম্ভবত আজ (শনিবার) তিনি মারা যান। কারণ ছেলে হারানোর ব্যথা তিনি সহ্য করতে পারেননি।’

তার আরেক সন্তান নিউজিল্যান্ডে থাকেন জানিয়ে ইয়াসের জানান, ‘তারা কফিন জর্ডানে নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।’

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত উগ্রবাদী খ্রিস্ট ধর্মীয় শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী আল নুর ও লিনউড মসজিদে ওই হামলা চালায়। এতে কমপক্ষে ৫০ জন নিহত এবং ৬০ জনের বেশি আহত হন।

আরপি