মুসলিম অভিবাসী বৃদ্ধির কারণেই ক্রাইস্টচার্চ রক্তাক্ত: অস্ট্রেলীয় সিনেটর

ঢাকা, রবিবার, ২৬ মে ২০১৯ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

মুসলিম অভিবাসী বৃদ্ধির কারণেই ক্রাইস্টচার্চ রক্তাক্ত: অস্ট্রেলীয় সিনেটর

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:০৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৫, ২০১৯

মুসলিম অভিবাসী বৃদ্ধির কারণেই ক্রাইস্টচার্চ রক্তাক্ত: অস্ট্রেলীয় সিনেটর

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে বন্দুকধারীর হামলার ঘটনায় দেশটির অভিবাসন নীতিকেই দায়ী করেছেন অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিং।

এই হামলাকে সন্ত্রাসী হামলার পরিবর্তে ‘সহিংস সতর্কতা’ হিসেবে অভিহিত করে অ্যানিং বিবৃতিতে বলেছেন, ‘এই হামলা আমাদের অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড উভয় সম্প্রদায়ের মধ্যে ভয় বৃদ্ধি করছে মুসলমানদের ক্রমবর্ধমান উপস্থিতি।

ডানপন্থী সন্ত্রাসবাদ, বন্দুক আইন বা ক্রমবর্ধমান বর্ণবাদকে ‘ঘৃণ্যতর নির্বুদ্ধিতা’ হিসেবে অভিহিত করে এই সিনেটর বলেন, 'নিউজিল্যান্ডের রাস্তায় আজকের রক্তপাতের আসল কারণ ধর্মান্ধ মুসলিমদেরকে প্রথমবার নিউজিল্যান্ডে বসবাসের সুযোগ দেওয়া।’

অবশ্য অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন ওই সিনেটরের বক্তব্যকে ‘বিরক্তিকর’ বলে নিন্দা জানিয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী টুইটারে বলেন, ‘দেশটিতে চরমপন্থী সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগে সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিংয়ের মন্তব্য বিরক্তিকর।’

তিনি বলেন, তার এই মতামতের অস্ট্রেলিয়ার কোনো স্থান নেই, এটা একান্ত একজন সংসদের মত।

নিউল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এতে সর্বশেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী বাংলাদেশী ৩জনসহ অন্তত ৪৯ জন নিহত এবং ৪৮ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। নৃশংস এই ঘটনায় সারা বিশ্বে নিন্দা ও সমালোচনার ঝড় বইছে।

সূত্র: তুরষ্কের গণমাধ্যম ’ইয়েনি সাফাক’

টিএটি/এসবি