কাস্তে-হাতুড়ি প্রতীকের টিশার্ট বিক্রি করবে না ওয়ালমার্ট

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ | ৩ কার্তিক ১৪২৫

কাস্তে-হাতুড়ি প্রতীকের টিশার্ট বিক্রি করবে না ওয়ালমার্ট

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:৪৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৮

কাস্তে-হাতুড়ি প্রতীকের টিশার্ট বিক্রি করবে না ওয়ালমার্ট

সোভিয়েত ইউনিয়নের কমিউনিস্ট যুগের সেই কাস্তে-হাতুড়ির প্রতীক সম্বলিত টিশার্ট এখন থেকে লিথুয়ানিয়ায় বিক্রি করবে না ওয়ালমার্ট, এমনটাই দাবি করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি জানান, এ ধরণের পণ্য লিথুয়ানিয়ায় আর বিক্রি করবে না ওয়ালমার্ট এ ব্যাপারে তারা নিশ্চয়তা পেয়েছেন।

তবে বিবিসি কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে ওয়ালমার্ট কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করলেও তাদের কাছ থেকে তাত্ক্ষণিক কোনো মন্তব্য মেলেনি।

এ মাসের শুরুতেই ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশটি এ পোশাক বিক্রি বন্ধে ওয়ালমার্টকে আহবান জানিয়েছিল। তখন বার্তা সংস্থা এএফপি যোগাযোগ করলেও আহবানের ব্যাপারে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি ওয়ালমার্ট।

তবে তাদের ওয়েবসাইটের তথ্য বিবরণীতে দেওয়া হয় যে, অবমাননাকর কোনো ঐতিহাসিক ঘটনা বা সংবাদ তারা তাদের পণ্যে উপস্থাপন করবে না।

যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত লিথুয়ানিয়ার রাষ্ট্রদূত রোলান্ডাস ক্রিসিয়ান্স জানান, এ প্রতীক সম্বলিত টিশার্ট তাদেরকে সোভিয়েত যুগের নিপীড়নকে স্মরণ করিয়ে দেয়। এ জন্য তারা এটি বিক্রি বন্ধে ওয়ালমার্টকে চিঠি লিখেছিলেন।

১৯৪০-১৯৫২ সালে ২ লাখ ৭৫ হাজার লিথুয়ানিয়ানকে জোরপূর্বক সাইবেরিয়াকে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছিল। লিথুয়ানিয়ার গণহত্যা নিয়ে গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সূত্রমতে, সে সময় ২১ হাজার লিথুয়ানিয়ানকে অস্ত্রপ্রয়োগে হত্যা করে সোভিয়েত ইউনিয়ন।

সোভিয়েতের নির্মমতার স্মৃতি ভুলতে দেশটিতে হাতুড়ি ও কাস্তে প্রতীক নিষিদ্ধ। সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর প্রথম দেশ হিসেবে ২০০৪ সালে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ন্যাটোতে যোগ দেয় ২০ লাখ ৯০ হাজার জনসংখ্যার দেশটি।

এদিকে একইভাবে সোভিয়েত প্রতীক সম্বলিত এসব পণ্য সরিয়ে নেওয়ার জন্য ওয়ালমার্টকে আহ্বান জানিয়েছে প্রতিবেশি দেশ এস্তোনিয়া ও লাটভিয়াও। দেশ দুটিও সোভিয়েত ইউনিয়নের দ্বারা একসময় নিপীড়নের শিকার হয়েছিল।

আরজি/এএসটি