মিলানে বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন

ঢাকা, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

মিলানে বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন

ইতালি প্রতিনিধি ৫:২০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৯

মিলানে বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন

ইতালির মিলানে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল মিলান অফিস মিলনায়তনে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হলো জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বাংলাদেশ কন্স্যুলেট জেনারেল মিলান কর্তৃক খতমে কোরআন, মিলাদ মাহফিল, বিশেষ মোনাজাত, স্মরণ সভা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই বাংলাদেশ কন্স্যুলেট জেনারেল মিলানের কনসাল জেনারেল ইকবাল আহমেদ, অন্যান্য কর্মকর্তা, স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারাসহ স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন।

জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়।

জাতীর শোকাবহ এদিনে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকদের হাতে শাহাদতবরণকারী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সদস্যসহ ওই রাতে নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় খতমে কোরআন, মিলাদ মাহফিল আয়োজন করা হয়। এবং শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

মিলানের স্থানীয় একটি মসজিদ সন্দ্রিওর খতিব মুফতি হোসেন ইমরান বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকদের হাতে নিহত সকল বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয় এবং একটি সুখী, সমৃদ্ধ, দারিদ্র্যমুক্ত, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদমুক্ত সোনার বাংলাদেশ বির্নিমাণের জন্য দোয়া করা হয়।

অনুষ্ঠানের মধ্যেভাগে স্মরণসভা ও আলোচনা অনুষ্ঠানের শুরুতেই কনসাল একে মোহাম্মাদ শামচুল আহসান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কনসাল শ্রম রফিকুল করিম।

বাণী পাঠের পর ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শৈশব, কৈশোর ও বর্ণাঢ্য  রাজনৈতিক জীবনের ওপর নির্মিত প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

এরপর সংক্ষিপ্ত আলোচনায় অংশ নেন প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতারা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা।

বক্তাগণ সকলেই স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্বাধীনতার ঘোষক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসামান্য অবদান কৃতজ্ঞতা চিত্তে স্মরণ করেন। এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের ঘৃণ্য ও বর্বরেচিত হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেন।

বাংলাদেশ কন্স্যুলেট জেনারেল মিলান এর কনসাল জেনারেল ইকবাল আহমেদের সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।

অনুষ্ঠানে শত শত প্রবাসী বাংলাদেশি, কন্স্যুলেটের সকল সদস্য ও তাদের পরিবারবর্গ, মিলান বাংলা প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ এবং স্থানীয় কমিউনিটির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এইচআর

 

প্রবাস: আরও পড়ুন

আরও