ভোটার না আসায় আবহাওয়াকে দুষলেন সিইসি

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ভোটার না আসায় আবহাওয়াকে দুষলেন সিইসি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ১২:০৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ০১, ২০১৯

ভোটার না আসায় আবহাওয়াকে দুষলেন সিইসি

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপ-নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কমের জন্য তিনটি বিষয়কে সামনে এনেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা। এর মধ্যে আবহাওয়াকে অন্যতম কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন তিনি।

শুক্রবার সকালে প্রথমবারের মতো জাতীয় ভোটার দিবস পালন উপলক্ষে এক শোভাযাত্রা শুরুর আগে সাংবাদিকদের সিইসি এসব কথা জানান।

জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে মানিক মিয়া এভিনিউ থেকে শোভাযাত্রাটি শুরু হয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে গিয়ে শেষ হয়।

ভোটার উপস্থিতি কমের ব্যাখ্যা দিয়ে সিইসি বলেন, ‘ঢাকা সিটি নির্বাচনে ভোটার কম হয়েছে। কারণ, এই নির্বাচনের মেয়াদ কম, বিএনপি অংশ নেয়নি। এ ছাড়া বৈরি আবহাওয়ার কারণেও ভোটারা ভোট দিতে আসেননি।’

বিগত কয়েকদিন ধরেই সারা দেশে বৃষ্টি হচ্ছে। সাগরে ৩ নম্বর সতর্ক সঙ্কেত দেয়া হয়। বৃহস্পতিবার ভোটের দিন ভোরেও রাজধানীতে হালকা বৃষ্টি হয়। এরপর জমে থাকে কালো মেঘ। তবে, দিনভর তা আর বৃষ্টি হয়ে ঝরেনি।

কিন্তু, বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোটার উপস্থিতি খুবই কম দেখা গেছে। অনেক কেন্দ্রে নির্বাচনী কর্মকর্তাদের ভোটারের জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।

অবশ্য ঘোষিত ফলাফলে বলা হয়েছে, ৩১.০৫ শতাংশ ভোট পড়েছে। যদিও ভোটের দিন দুপুরে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ প্রত্যাশা করেছিলেন, যেভাবে নির্বাচন হচ্ছে, তাতে ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পড়বে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপি অংশ না নেয়ায় মানুষের মধ্যে এই ভোট নিয়ে তেমন আগ্রহ ছিল না। ক্ষমতাসীন নৌকার বিপক্ষে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী বলতে জাতীয় পার্টির সদ্য রাজনীতিক হওয়া গায়ক শাফিন আহমেদ। কিন্তু, প্রচারণাতে তেমন আলোড়ন ফেলতে পারেননি।

তবে, সিইসি বলেন, ‘এই নির্বাচনে প্রধান বিরোধীদল না এলেও জনগণ ঠিকই অংশ নিয়েছেন। তাদের ভোটেই মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আতিকুল ইসলাম।’

নূরুল হুদা জোর দিয়ে বলেন, ‘আমরা মানুষের ভোটের অধিকার পুরোপুরি নিশ্চিত করেছি। জনগণকে নির্বিঘ্নে ভোট দেয়ার সুযোগ করে দিয়েছি।’

শোভাযাত্রায় চার নির্বাচন কমিশনার, ইসি সচিবসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশ নেন।

এইচকে/আইএম

 

নির্বাচন কমিশন: আরও পড়ুন

আরও