ধাপে ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা ‘জানে না’ ইসি

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫

ধাপে ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা ‘জানে না’ ইসি

মো. হুমায়ূন কবীর ৯:০০ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০১৮

ধাপে ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা ‘জানে না’ ইসি

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন ধাপে ধাপে অনুষ্ঠানে সরকারের পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তবে এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন (ইসি) কিছুই জানে না। আর ধাপে ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠানে সংবিধান সংশোধনের প্রয়োজন হবে বলেও জানিয়েছে ইসি।

শনিবার টাঙ্গাইলে এক অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী বলেন, ছবিসহ ভোটার আইডি কার্ড হওয়ায় ফলে এখন আর জালিয়াতির নির্বাচন করা সম্ভব নয়। তবে দুই এক জায়গায় গুণ্ডা বাহিনী দিয়ে ভোটকেন্দ্র দখল করার সম্ভবনা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এজন্য পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দিয়ে সারাদেশে কয়েক ধাপে জাতীয় সংসদ নির্বাচন আয়োজন করার পরিকল্পনাও করা হয়েছে।

এনিয়ে ইসির কোনো পরিকলন্পনা আছে কি না জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘আমাদের কোনো পরিকল্পনা থাকতেই পারে না। আমাদের পরিকল্পনা সংবিধান।’

তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত সংবিধানে যেটা আছে, সেটা হলো একদিনে নির্বাচন করতে হবে। সংবিধান অনুযায়ী আমাদের প্রস্তুতি। অন্য কে কী বলল এ ব্যাপারে আমাদের কিছু জানা নেই। সংবিধানের বাইরে কমিশন নেই।’

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘এ বিষয়ে আমাদের জানা নেই। নির্বাচন একদিনেই হয়, একদিনেই হবে। ধাপে ধাপে করতে হলে সংবিধান সংশোধন করতে হবে। আগামী সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনের সকল আসনে একদিনেই নির্বাচন হবে।’

ধাপে ধাপে নির্বাচনের বিষয়ে সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন সভাপতি এম হাফিজ উদ্দিন খান পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, কয়েক ধাপে নির্বাচন ইন্ডিয়াতে হয়। সেটা ভালো। তবে একটি সমস্যা হলো ওদের দেশে এটা নিয়ে কোনো প্রশ্ন ওঠে না। ইন্ডিয়াতে সব জায়গায় নির্বাচন হয়ে গেলে একদিনে ভোট গণনা করে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের এই উপদেষ্টা বলেন, আমাদের দেশে এ পর্যন্ত এভাবে নির্বাচন হয়নি। এভাবে করা যাবে কিনা, করতে পারবে কিনা এবং সেফটি (তথ্যের গোপনীয়তার নিরাপত্তা) নিশ্চিত করতে পারবে কি না এটি দেখার বিষয় আছে। সুতরাং বিস্তারিত না দেখে কিছু বলা যাচ্ছে না।

তার মতে, ধাপে ধাপে নির্বাচন হলে ভালো হয়, কারণ একদিনে আয়োজন করা ডিফিকাল্ট (কঠিন)।

এইচকে/এমএসআই