যে হোটেল গ্রীষ্মে পানিতে ভাসে আর শীতে বরফে ঢাকা

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

যে হোটেল গ্রীষ্মে পানিতে ভাসে আর শীতে বরফে ঢাকা

পরিবর্তন ডেস্ক ২:২৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৮

যে হোটেল গ্রীষ্মে পানিতে ভাসে আর শীতে বরফে ঢাকা

সুইডেনের স্ক্যান্ডিনেভিয়ার উত্তরাঞ্চলে লিউলে নদীর ওপরে তৈরি করা হচ্ছে ‘দ্য আর্কটিক বাথ’ নামের এমন একটি হোটেল ও স্পা, যা গ্রীষ্মকালে পানিতে ভেসে থাকবে। আর শীতে বরফে জমে যাবে। হোটেলটির অবস্থান সুমেরুর প্রভা বা নর্দার্ন লাইট উপভোগের জন্য দারুণ।

জানা গেছে, হোটেলটির বৃত্তাকার গঠন প্রকৃতি এর ভেতরের পরিবেশ ও অতিথিদের সুরক্ষিত রাখতে সহায়তা করবে। হোটেলটিতে থাকছে ছয়টি বিলাসবহুল কক্ষ। প্রতিটি কক্ষ থেকে উপভোগ করা যাবে শীত-গ্রীষ্মের সৌন্দর্য। হোটেলটি নদীর তীরের সঙ্গে মজবুত করে বেঁধে রাখার ব্যবস্থা রয়েছে। স্রোতের সঙ্গে ভেসে যাওয়ার আশঙ্কা নেই।

এছাড়া, আর্কটিক বাথের খোলা ছাদে রয়েছে সূর্যস্নান, বরফ স্নান, নর্দার্ন লাইট এবং তারা ভরা আকাশ উপভোগের ব্যবস্থা। এখানে বরফ স্নানের ব্যবস্থাটি অবশ্য দুর্বলচিত্তের মানুষের জন্য নয়। তবে থাকছে সূর্যস্নান এবং উষ্ণ স্পার ব্যবস্থা।

দ্য আর্কটিক বাথ নির্মাণ প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত জোহান কাউপ্পি বলেন, জীবনে নতুন কিছু উপভোগের চমৎকার জায়গা হবে এটি। এর চারপাশে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য নকল করার কোনো দরকার নেই।

এছাড়া হোটেলটির নকশাকার বার্তিল হার্সট্রম বলেন, সুইডেনের প্রাচীন লগ-শিপিং ঐতিহ্য থেকে এর ধারণা নেয়া হয়েছে। ২০ শতকের দিকে পানিপথে সুইডেনের বিভিন্ন জায়গায় গাছের গুঁড়ি পরিবহন করা হতো। তিনি আরও বলেন, ‘শৈশবের স্মৃতি মনে করে হোটেলটির নকশা তৈরি করা হয়েছে। ফেলে আসা যুগের প্রতীক হিসেবে কাজ করবে এটি।’

২০১৭ সালে হোটেলটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। নির্মাণ কাজ সম্পূর্ণভাবে শেষ না হওয়ায় এটি এখনও উন্মুক্ত করা হয়নি। ২০১৯ সালের শুরুর সময়ে এটির কার্যক্রম শুরু হবে।

সূত্র: theluxecafe

ইসি/