অনন্ত জলিলের চুরি যাওয়া টাকা উদ্ধার

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

অনন্ত জলিলের চুরি যাওয়া টাকা উদ্ধার

পরিবর্তন ডেস্ক: ১১:৩৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯

অনন্ত জলিলের চুরি যাওয়া টাকা উদ্ধার

অভিনেতা ও পরিচালক অন্তত জলিলের ৫৭ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়া প্রাইভেটকার চালক শহীদুল ইসলাম শহীদের ভোলার দৌলতখান মধ্য জয়নগর গ্রামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে স্ত্রীসহ তাকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ২৮ লাখ ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে সাভার ডিবি পুলিশ। এর মধ্যে ২০ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে মাটির নিচের গর্ত থেকে।  ৮ লাখ ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে বাংলাবাজার ইসলামী ব্যাংক ও অগ্রণী ব্যাংক শাখা থেকে।

অভিযানের নেতৃত্বে থাকা সাভার ডিবি’র এসআই আশরাফুল আলম জানান, মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত উদ্ধার করা নগদ ২৫ লাখ টাকা তার হাতে রয়েছে। বিকেলে গাড়ি চালক শহীদের স্ত্রী আরজু বেগম ব্যাংক থেকে টাকা তুলে পালাতে চেষ্টা করে। টাকাসহ তাকেও আটক করা হয়।

এর আগে দুপুরে শহীদকে মধ্য জয়নগর গ্রামের বাড়ি থেকে আটক করা হয়। শহীদুল ইসলাম শহীদ অভিনেতা অনন্ত জলিলের প্রাইভেট কারের চালক ছিলেন। এ বছর ৭ এপ্রিল অভিনেতা অনন্ত জলিলের ৫৭ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় শহিদুল। এ ঘটনায় অনন্ত জলিল বাদী হয়ে সাভার থানায় মামলা করেন। মামলার পর ওই থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে ভোলায় এসে শহীদকে না পেয়ে তার বাবা ও মাকে আটক করে। পরে অবশ্য এরা জামিনে মুক্তি পায়।

এদিকে গত ৩ মাসে টাকা উদ্ধার না হওয়ায় মামলাটি সাভার ডিবিতে স্থানান্তরিত করা হয়। ডিবির ৮ জন সদস্য গত মঙ্গলবার ভোলায় এসে অভিযান শুরু করে। এদের সহায়তা দেন দৌলতখান থানা পুলিশ।

দৌলতখান থানার ওসি এনায়েত হোসেন ও এসআই রিয়াজুল ইসলাম জানান, সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৮ লাখ ২০ হাজার টাকা উদ্ধার হয়েছে।

ডিবির টিম লিডার আশরাফ জানান, তাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তারা বাকি টাকা উদ্ধারের আশা করছেন।

স্থানীয়রা জানান, শহীদ তার বাড়িতে পাকা ভবন করার কাজ শুরু করেছে। অপরদিকে বাড়ির ভেতরে একটি গর্ত করে তাতে পলিথিনে ভরে ২০ লাখ টাকা পুতে রাখে। এমন কি ওই গর্তের উপর সিমেন্ট ঢালাই দিয়ে ইটের দেয়াল তৈরি করে। ডিবির সদস্যরা ওই গর্ত থেকে তোলা টাকা থেকে পচা গন্ধ বের হতে থাকে। পরে তা রোদে শুকাতে দেয়া হয়। বৃষ্টির পানির তোড়ে ভিজে গেছে টাকা।

জিজাক/

 

ঢালিউড: আরও পড়ুন

আরও