মহানায়ক বুলবুল আহমেদের ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ঢাকা, ১৮ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

মহানায়ক বুলবুল আহমেদের ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০১৯

মহানায়ক বুলবুল আহমেদের ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

সত্তরের দশকের পর্দা কাঁপানো অভিনেতা বুলবুল আহমেদ। মার্জিত, সুদর্শন ও সুশিক্ষিত ব্যক্তিত্বের অধিকারী এই অভিনেতা চলচ্চিত্রের সব শ্রেণীর দর্শকদের গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছেন। আজ তাঁর ৮তম মৃত্যুবার্ষিকী।

২০১০ সালের এই দিনে পৃথিবীকে চির বিদায় জানান ঢাকাই ছবির মহানায়ক উপাধি পাওয়া এই অভিনেতা।

পুরনো ঢাকার আগামসিহ লেনে ১৯৪১ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন বুলবুল আহমেদ। প্রকৃত নাম তাবারক আহমেদ হলেও বাবা-মা আদর করে বুলবুল বলে ডাকতেন। সেই থেকে তিনি সর্বজনে বুলবুল নামেই পরিচিত।

ছোট বেলায় সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে বেড়ে উঠেছেন বুলবুল আহমেদ। তার সরকারি চাকুরে বাবা খলিল আহমেদ ছিলেন আপাদমস্তক সংস্কৃতি প্রেমী। মঞ্চ নাটকসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন। বাবার কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে অভিনয়ের পথচলা শুরু বুলবুল আহমেদের।

শিক্ষাজীবনে মঞ্চ নাটকের সঙ্গে জড়িত ছিলেন বুলবুল আহমেদ। মঞ্চ নাটকের সূত্র ধরে প্রয়াত নাট্যনির্মাতা আব্দুল্লাহ আল মামুনের সঙ্গে তাঁর পরিচয়। ১৯৬৪ সালে তিনি আব্দুল্লাহ আল মামুন পরিচালিত ‘বরফ গলা নদী’ নাটক দিয়ে টেলিভিশনে পা রাখেন।

এরপর একে একে মালঞ্চ, ইডিয়েট, মাল্যদান, শেষ বিকেলের মেয়ে, বড়দিদি ও আরেক ফাল্গুন এর মতো বেশ কিছু ধ্রুপদী নাটক উপহার দেন। ওই সময় তিনি অভিনয়ের পাশাপাশি একটি ব্যাংকে ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বুলবুল আহমেদ চলচ্চিত্রে প্রথম অভিনয় করেন ১৯৭৩ সালে ‘ইয়ে করে বিয়ে’ ছবিতে। আব্দুল্লাহ ইউসুফ ইমাম পরিচালিত ওই ছবিতে নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি বুলবুল। তখনো তিনি অভিনয়কে পেশা হিসেবে নেননি।

১৯৭৫ সালে বন্ধু আলমগীর কুমকুম পরিচালিত ‘জীবন নিয়ে জুয়া’ ছবির মাধ্যমে বুলবুল আহমেদের পরিচিতি ছড়িয়ে পড়ে। এরপর তিনি চাকরি ছেড়ে দিয়ে অভিনয়কে পেশা হিসেবে গ্রহণ করেন।

সুদীর্ঘ ৪৪ বছরের অভিনয় জীবনে অসংখ্য নাটক ও চলচ্চিত্র উপহার দিয়েছেন বুলবুল আহমেদ। তাঁর উল্লেখযোগ্য ছবির মধ্যে রয়েছে অঙ্গীকার, ধীরে বহে মেঘনা, রুপালি সৈকতে, সীমানা পেরিয়ে, দ্য ফাদার, মহানায়ক ও দেবদাস।

বেশ কিছু ছবিও পরিচালনা করেছেন তিনি। নব্বইয়ের দশকে চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়ে নাটকে মনযোগী হন বুলবুল আহমেদ।

অভিনয়ে অসামান্য অবদানের জন্য চারবার জাতীয় চলচিত্র পুরস্কারসহ অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন কিংবদন্তি এই অভিনেতা।

ইসি/

 

ঢালিউড: আরও পড়ুন

আরও