রমযানে বৃদ্ধাশ্রমের মায়েদের ‘পূর্ণিমা’ প্রাপ্তি

ঢাকা, ২ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

রমযানে বৃদ্ধাশ্রমের মায়েদের ‘পূর্ণিমা’ প্রাপ্তি

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৫:১২ অপরাহ্ণ, মে ২৫, ২০১৯

রমযানে বৃদ্ধাশ্রমের মায়েদের ‘পূর্ণিমা’ প্রাপ্তি

নচিকেতার বিখ্যাত গানের মতো জীবন। সব করেও ঠাঁই বৃদ্ধাশ্রমে। জীবনযুদ্ধে যারা হার মেনে এখন প্রহর গুণছেন সৃষ্টিকর্তা কবে ডাক দিবেন!

এসব মানুষের জীবনে সাধ-আহ্লাদ বলতে কিছু নেই। কারও একটু ভালবাসা, মমতা পেলেই ভীষণ খুশি হন। প্রাণভরে দোয়া করেন।

শুক্রবার রাজধানীর উত্তরায় বৃদ্ধাশ্রমের হতভাগ্য এমন মায়েদের দেখতে গিয়েছিলেন ঢাকায় সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা দিলারা হানিফ পূর্ণিমা।

ক্ষণিকের জন্য তাকে পেয়ে দারুণ খুশি হয়েছেন ‘আপন নিবাস বৃদ্ধাশ্রমের’ বাসিন্দারা।

শনিবার সকালে পূর্ণিমা নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পাতায় একগুচ্ছ ছবির সেই অ্যালবাম প্রকাশ করেন। সেখানে বৃদ্ধাশ্রমের নানা মুহূর্ত উঠে এসেছে।

পূর্ণিমার ভক্তরাও অ্যালবামটি শেয়ার করছেন। তার প্রশংসা করে অনেকে মন্তব্য করছেন।

আপন নিবাস বৃদ্ধাশ্রমের ফেসবুক পেজেও শুক্রবার এ তথ্য দিয়ে একটি পোস্ট দেয়া হয়েছে।

তাতে উল্লেখ করা হয়েছে, হ্যাঁ, আজকের দিনটির কথা আমাদের মা এবং ছোট প্রতিবন্ধী বোনেরা কখনোই ভুলবে না!! আজ এসেছিলেন আমাদের সবার প্রিয় মুখ এবং অসম্ভব ভালো মনের একজন মানুষ। দিলারা হানিফ পূর্ণিমা। মায়েদের জন্যে খাবার এনেছেন। গল্প করেছেন, গান গেয়েছেন আর অফুরন্ত ভালোবাসা দিয়েছেন।

পাশাপাশি কথা দিয়েছেন ভবিষ্যতেও তিনি আসবেন আমাদের মায়েদের সাথেই থাকবেন!

জানা গেছে, রাজধানীর উত্তরখানের আপন নিবাস বৃদ্ধাশ্রমে গিয়ে সেখানকার মায়েদের সঙ্গে সময় কাটান পূর্ণিমা। তারা এই নায়িকাকে পেয়ে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন। পূর্ণিমাও মায়েদের সঙ্গ দারুণ উপভোগ করেন। হতভাগ্য মায়েদের সঙ্গে একবেলা খাবার খান।

উত্তরার মৈনারটেকের ওই বৃদ্ধাশ্রমের নামফলকের সামনে দাঁড়িয়ে তোলা ছবিও শেয়ার করেন পূর্ণিমা। সেখানে দেখা যায়, প্রবীণদের সহযোগিতায় সবার সাহায্য চাওয়া হয়েছে।

উত্তরার উত্তরখান এলাকার মৈনারটেক জিয়াবাগ বৈকাল স্কুলের পাশে অবস্থিত ‘আপন নিবাস বৃদ্ধাআশ্রম’। ২০১০ সালে মাত্র ৬ জন সর্বস্বহারা নিয়ে আপন নিবাস বৃদ্ধাশ্রমের কার্যক্রম শুরু হয়। বর্তমানে অর্ধশতাধিক বৃদ্ধ মা ও প্রতিবন্ধী রয়েছেন।

বৃদ্ধাশ্রমটির নির্বাহী প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সৈয়দা সেলিনা শেলী জানান, বৃদ্ধাশ্রমে এসেছিলেন সবার প্রিয়মুখ পূর্ণিমা। তিনি অসম্ভব ভাল মনের একজন মানুষ। তাকে কাছে পেয়ে বৃদ্ধাশ্রমের বাসিন্দা ভীষণ খুশি হয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের স্বপ্ন, কোনো মাকে অবহেলা নয়। সবার একটি সুন্দর জীবন নিশ্চিত করা। সবার ভালবাসা আর সহায়তায় এগিয়ে যাচ্ছে আপন নিবাস।’

বহুদিন সিনেমায় দেখা না গেলেও নিয়মিত বিজ্ঞাপন ও সঞ্চালনা করছেন পূর্ণিমা। বিশেষ উপলক্ষে নাটকও করছেন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, সর্বশেষ গত বছরের শেষদিকে নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল পরিচালিত ‘জ্যাম’ ও ‘গাঙচিল’ সিনেমার জন্য ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান পূর্ণিমা। এর মধ্যে প্রথমটির কাজ পুরোপুরি শেষ।

কিন্তু, দৃশ্যায়নের সময় পূর্ণিমা মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হওয়ায় থমকে যায় দ্বিতীয় ছবিটির কাজ।

‘গাঙচিল’ নির্মিত হচ্ছে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের একই নামের উপন্যাস অবলম্বনে। এই ছবির পূর্ণিমার বিপরীতে আছেন ফেরদৌস। অন্যটিতে আছেন আরিফিন শুভ।

আইএম

 

ঢালিউড: আরও পড়ুন

আরও