কেরানীগঞ্জে কারখানায় আগুন, দগ্ধ ৩২ ঢামেকে

ঢাকা, রবিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২০ | ৬ মাঘ ১৪২৬

কেরানীগঞ্জে কারখানায় আগুন, দগ্ধ ৩২ ঢামেকে

ঢামেক প্রতিনিধি ৭:২৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯

কেরানীগঞ্জে কারখানায় আগুন, দগ্ধ ৩২ ঢামেকে

ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের হিজলতলা এলাকায় প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দগ্ধের সংখ্যা বাড়ছে। সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, ওই কারখানার ৩২ জন দগ্ধ শ্রমিক ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

বুধবার বিকেল চারটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতরা হচ্ছেন— লাল মিয়া, মেহেদী, দূর্জয়, সুজন, ওমর ফারুক, এহসান, রিয়াজ, জাকির, সোহাগ, মফিজুল, মোস্তাকিম, সালাউদ্দিন, আলম, সজল, ফিরোজ, আসলাম, ইমরান, দিদারুল, জিসান, রাজ্জাক, সোহান, ফয়সাল, বাবুল, জাহাঙ্গীর, বশির, খালেদ, শাখাওয়াত, আবু সাইদসহ ৩২ জন।

এদের বয়স ২০ থেকে ৩৮ এর মধ্যে।

বার্ণ ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ পার্থ শঙ্কর পাল বলেন,  আহত সকলকেই চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আহতরা সকলেই কম বেশী দগ্ধ হয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের সকল স্টাফদের সংবাদ দেয়া হয়েছে, ঊর্ধ্বতন চিকিৎসকদেরকেও জানানো হয়েছে, তারাও সকলে চলে আসছেন।

আহতদের মধ্যে কতজনের অবস্থা আশংকাজনক হতে পারে এ বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখনতো তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ বিষয়টি পরে বলা যাবে।

এদিকে, ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাড়ীর ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ বাচ্চু মিয়া বলেন, আহতদের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তাদের থেকে জানা গেছে ঘটনাস্থলে আরও অনেক আহত রয়েছে। তাই, ঢামেকে অপেক্ষমান ১৫/২০টি বেসরকারি এম্বুলেন্স কেরানীগঞ্জের উদ্দেশ্যে পাঠিয়ে দিয়েছি। আহতদের সহযোগিতার জন্য।

ক্যাজুয়ালটি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ মোঃ আলাউদ্দিন বলেন, আমরা সকল স্টাফদের ছুটি বাতিল করে রোগীদের সেবার জন্য উপস্থিত থাকার জন্য বলেছি। আমরা সকলেই প্রস্তুত রয়েছি তাদের সেবার জন্য।

ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন জানান, কেরানীগঞ্জ থেকে দগ্ধদের সব ধরনের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে এ পর্যন্ত ৩২ জন দগ্ধ হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছে। তবে, এদের মধ্যে কাউকেই বর্তমানে আশঙ্কামুক্ত বলা যাচ্ছে না আমাদের মেডিকেলের চিকিৎসক-নার্স সবাই তাদেরকে সব ধরনের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন ।

এমআর/জেডএস

আরও পড়ুন...
কেরানীগঞ্জে কারখানায় আগুন, দগ্ধ ২৭ ঢামেকে

 

ঢাকা: আরও পড়ুন

আরও