স্কুলছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্য আটক

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্কুলছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্য আটক

নোয়াখালী প্রতিনিধি ৭:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০১৯

স্কুলছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্য আটক

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায়ে এক নবম শ্রেণির ছাত্রী (১৬) কে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে ধর্ষণ করার অভিযোগে এক ইউপি সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

অপহৃতের পিতা আব্দুল হালিম বাদি হয়ে থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন। ভিকটিমকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৭ নভেম্বর বিপুলাসার উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী ও উপজেলার চাষিরহাট ইউনিয়নের জাহানাবাদ গ্রামের আব্দুল হালিমের মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোশারফ (৩৮) সিএনজি যোগে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাকে খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা থানা এলাকায় আসামির খালার বাড়িতে নিয়ে তিনদিন আটকে রেখে ধর্ষণ করে। পরে ১৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় মোশারফ মেম্বার চাষিরহাট নতুন বাজার এলে ওই ছাত্রীর ভাই ও এলাকার লোকজন মেম্বারকে আটক করে রাখে।

পুলিশ খবর পেয়ে এলাকাবাসির কাছ থেকে মেম্বার মোশারফ মেম্বারকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা আব্দুল হালিম বাদি হয়ে শুক্রবার বিকেলে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

এরপর অভিযুক্ত মোশারফ মেম্বারের দেয়া তথ্যমতে চট্টগ্রাম জেলার ভুজপুর থানাধীন দাঁতমারা এলাকা থেকে ছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। 

সোনাইমুড়ী থানার ওসি আব্দুস সামাদ জানান, এ ঘটনায় সোনাইমুড়ী থানায় মামলা হয়েছে। ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পরীক্ষা শেষে ২২ ধারা জবানবন্দি নেয়া হয়। পরে শনিবার বিকেলে আসামিকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ইএইচএস/এমকে

 

ঢাকা: আরও পড়ুন

আরও