অপর্যাপ্ত জনবলই গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রধান অন্তরায়

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯ | ২ কার্তিক ১৪২৬

অপর্যাপ্ত জনবলই গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রধান অন্তরায়

গাজীপুর প্রতিনিধি ৪:৫০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

অপর্যাপ্ত জনবলই গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রধান অন্তরায়

মাদক, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, কিশোর গ্যাং এবং পরিবহনে নৈরাজ্যসহ সকল ধরনের অপরাধ মোকাবিলায় পর্যাপ্ত জনবল থাকলে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব হত এমন মন্তব্য করেছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মো. আনোয়ার হোসেন।

সোমবার দুপুরে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পুলিশ কমিশনার বলেন, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ ১৫২ জন জনবল নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও এখন পর্যন্ত এ সংখ্যা বাড়েনি। জনবহুল মহানগর এর জন্য আরও জনবল প্রয়োজন। এ ব্যাপারে ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে জনবল বাড়ানোর আবেদন জানানো  হয়েছে।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আজাদ মিয়া, উপ পুলিশ কমিশনার ট্রাফিক মো. আরিফুল হক, উপ পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মনজুর রহমান।

সাংবাদিকদের মধ্যে বক্তব্য দেন- গাজীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শাহ শামসুল হক রিপন, অধ্যাপক মুকুল কুমার মল্লিক, মো. মাজহারুল ইসলাম মাসুম, অধ্যাপক মো. আবুল হোসেন, প্রভাষক মো. আবুবকর সিদ্দিক আকন্দ, মো. আমিনুল ইসলাম, মাহমুদ আল আমিন, মাহমুদা শিকদার প্রমুখ।

গাজীপুরের বিভিন্ন মহাসড়ক এবং আঞ্চলিক মহাসড়কগুলোতে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা বন্ধের উদ্যোগকে স্বাগত জানান তারা।

এছাড়া মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক সন্ত্রাস চাঁদাবাজি ছিনতাই এবং নতুন করে জেগে ওঠা কিশোর অপরাধ নিয়ন্ত্রণের অনুরোধ করেন সাংবাদিক নেতারা।

এসব বিষয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, অচিরেই জনদুর্ভোগ কমাতে গাজীপুর মহানগরের মহাসড়ক এবং আঞ্চলিক মহাসড়কগুলোতে পর্যাপ্ত পরিবহনের সংস্থান এবং ভাড়া নির্ধারণ করে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে টানিয়ে দেয়া হবে।

তিনি বলেন, মাদক ব্যবসায়ীর পরিচয় কেবলই মাদক ব্যবসায়ী পুলিশের কাছে তার অন্য কোনো পরিচয় নেই। এ মানসিকতা নিয়েই গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ গাজীপুর মহানগর এলাকায় মাদক সহ অন্যান্য অপরাধ দূর করতে কাজ করে যাচ্ছে।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নয়নে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে একটি পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপনের বিষয়টি বিবেচনায় রাখার কথা উল্লেখ করেন। মহানগরের অপরাধপ্রবণ এলাকা গুলোতে পুলিশি নজরদারি বৃদ্ধি করা হবে বলেও তিনি জানান।

এছাড়াও গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের বিভিন্ন থানায় বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রসঙ্গত  ২০১৮ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের যাত্রা শুরু হয়।

এমএইচ

 

ঢাকা: আরও পড়ুন

আরও