‘জান দেবো তবু বালু দেবো না’

ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

‘জান দেবো তবু বালু দেবো না’

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ৭:৩৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৯

‘জান দেবো তবু বালু দেবো না’

‘জান দেবো তবু বালু দেবো না’এই স্লোগান নিয়ে টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে যমুনা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধুসেতুর দক্ষিণ-পূর্বপাশে কালিহাতী উপজেলার আলীপুরে যমুনা পাড়ের আট গ্রামের তিন সহস্রাধিক মানুষ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

এতে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম, আব্দুর রাজ্জাক, রফিকুল ইসলাম মাস্টার, শামসুল আলম প্রমুখ।

মানববন্ধনে ক্ষতিগ্রস্তরা অভিযোগ করেন, স্থানীয় প্রশাসন ও বিবিএ’র কতিপয় অসাধু কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে একটি প্রভাবশালী মহল দীর্ঘদিন যাবত বালু উত্তোলন করছে। ফলে যমুনা পাড়ে বসবাসকারীরা প্রতিবছর নদী ভাঙনের শিকার হচ্ছেন। তারা বালু খেকোদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

মানবন্ধনে আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বঙ্গবন্ধু সেতুর কোল ঘেঁষে যমুনা নদী থেকে

দীর্ঘদিন ধরে বালু উত্তোলন করে আসছে প্রভাবশালী একটি মহল। বালু উত্তোলনের ফলে উপজেলার চর সিংগুলি, বন সিংগুলি, কায়েম সিংগুলি, জিদহ, ভৈরববাড়ী, আলীপুর, বেলটিয়া, খাগচড়া গ্রাম নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বাড়ি ঘর হারিয়ে নিঃস্ব হয়েছেন অনেক মানুষ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম বলেন, বালু উত্তোলনের প্রতিবাদ করায় তাদের চাঁদাবাজির মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শণ করে বালু উত্তোলনকারী। এর আগে বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীর সাথে বালু উত্তোলনকারীদের সংঘর্ষ বাঁধে।

শামসুল আলম বলেন, বঙ্গবন্ধু সেতুর ৬ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে নদী থেকে

বালু উত্তোলন নিষিদ্ধ হলেও তোয়াক্কা করছেন না প্রভাবশালীরা। দীর্ঘদিন

ধরে বালু উত্তোলনের ফলে হুমকির মুখে পড়েছে সেতুটি। এছাড়া উত্তরবঙ্গে গ্যাস সংযোগের লাইনও রয়েছে হুমকিতে। যে কোন সময় গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ হয়ে ঘটতে পারে মারাত্মক দুর্ঘটনা।

এ বিষয়ে বিবিএ’র নিয়ন্ত্রণাধীন বঙ্গবন্ধুসেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল বলেন, সেতু এলাকার ৬ কিলোমিটারের মধ্যে বালু উত্তোলন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। তারপরেও একটি প্রভাবশালী মহল বার বার বালু উত্তোলন করার চেষ্টা করে। বালু উত্তোলনের প্রভাব পরোক্ষভাবে সেতুর উপর গিয়ে পড়ে। বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে মামলা ও মাঝে মাঝে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়। আমরা তাদের বিরুদ্ধে সতর্ক আছি।

এ বিষয়ে কালিহাতী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহরিয়ার রহমান বলেন, বালু উত্তোলন বন্ধে আমাদের ভ্রাম্যমণন আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়। বর্তমানে বালু উত্তোলন বন্ধ রয়েছে।

এএএন/এফএ

 

ঢাকা: আরও পড়ুন

আরও