টাঙ্গাইলে শিক্ষক লাঞ্ছিতের ঘটনায় দোষীদের শাস্তি দাবিতে মানববন্ধন-বিক্ষোভ

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

টাঙ্গাইলে শিক্ষক লাঞ্ছিতের ঘটনায় দোষীদের শাস্তি দাবিতে মানববন্ধন-বিক্ষোভ

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ৫:১৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০১৯

টাঙ্গাইলে শিক্ষক লাঞ্ছিতের ঘটনায় দোষীদের শাস্তি দাবিতে মানববন্ধন-বিক্ষোভ

টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার বেটুয়াজানি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামস উদ্দিনকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় ফুসে উঠেছে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। দোষীদের শাস্তির দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মত সোমবার স্থানীয় আলহাজ্ব রমজান আলী উচ্চ বিদ্যালয় ও জরিপননেসা স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেছে। রোববার রাতে প্রধান শিক্ষক মো. শামস উদ্দিন বাদী হয়ে নাগরপুর থানায় মামলা করেছেন।

সোমবার সকালে উপজেলার নাগরপুর-মির্জাপুর সড়কের পংবাইজোড়ায় আলহাজ্ব রমজান আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় ও জরিপননেসা স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা দোষীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে।

এসময় আলহাজ্ব রমজান আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিনোদ চন্দ্র সরকার বেটুয়াজানী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করার তীব্র নিন্দা জানিয়ে দ্রুত এর সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার আহ্বান জানান। জরিপননেসা স্কুল এন্ড কলেজের ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী সোনালী আক্তার শিক্ষককে মারধোরের প্রতিবাদ করে দোষীদের শাস্তি দাবি করেন।

উল্লেখ্য বেটুয়াজানী উচ্চ বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর ঘেষে মূল সড়কের পাশে কয়েক বছর যাবৎ দোকান ঘর নির্মাণ করে ব্যবসা করে আসছিল ওই বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য মো. শফিকুল ইসলাম। শনিবার (১৩ জুলাই) বিকেলে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিদ্যালয়ের পাকা সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করতে গেলে প্রধান শিক্ষক মো. শামস উদ্দিন ও দোকান মালিক শফিকুলের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে শফিকুল তার লোকজন নিয়ে প্রধান শিক্ষক ও অফিস সহকারীকে মারধর করে।

এ ঘটনায় পরদিন রোববার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাস্তায় গাছের খণ্ড ফেলে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। পরে পুলিশ ঘটনা স্থলে এসে দায়ী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়।

এ ব্যাপারে নাগরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা মন্ডল শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, বেটুয়াজানী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শামস উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা করেছেন। দোষীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এএএন/এইচকে

 

ঢাকা: আরও পড়ুন

আরও