টাঙ্গাইলে সব নদীর পানি বেড়েছে

ঢাকা, ১৬ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

টাঙ্গাইলে সব নদীর পানি বেড়েছে

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ২:৪৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০১৯

টাঙ্গাইলে সব নদীর পানি বেড়েছে

গত কয়েকদিনের ভারী বর্ষণের ফলে টাঙ্গাইলে বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় সব কয়টি নদীর পানি। যমুনা ও ধলেশ্বরী নদীর পানি বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে এই দুটি নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

সোমবার সকালে যমুনা নদীর পানি বিপসসীমার ১৬ সে.মি. উপরে এবং ধলেশ্বরী নদীর পানি ২৫ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এর ফলে নদী তীরবর্তী এলাকায় ব্যাপক ভাঙন শুরু হয়েছে।

বিশেষ করে গত কয়েকদিনে যমুনা নদী তীরবতী ভূঞাপুর উপজেলার কয়েকটি গ্রামে ব্যাপক ভাঙন শুরু হয়েছে। এখন পর্যন্ত ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। আর এতে গৃহহীন হচ্ছেন অনেকেই। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্তৃপক্ষ বলছে আগামী বুধবার পর্যন্ত নদীর পানি বৃদ্ধি পাবে।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইলের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, গত কয়েকদিনের ভারী বর্ষণের ফলে টাঙ্গাইলের যমুনা, এলেংজানী, পুংলী, ঝিনাই, বংশাই ও ধলেশ্বরীর পানিতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এর মধ্যে যমুনা নদীর পানি বিপদসীমার ১৬ সে.মি. উপরে এবং ধলেশ্বরী নদীর দেলদুয়ার উপজেলার এলাসিন ব্রিজের এখানে বিপদ সীমার ২৫ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আগামী বুধবার পর্যন্ত এ সব নদীতে পানি বৃদ্ধি পাবে। তবে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে পানি কমতে পারে। আর পানি কমলে ভাঙন হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

নদী ভাঙন কবলিত এলাকাগুলোর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ভাঙন রোধে আমরা কাজ করছি এবং কাজ চলমান রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, নদী তীরবর্তী টাঙ্গাইল সদর উপজেলার মামুদনগর ইউনিয়ন, ভূঞাপুর উপজেলার গোবিন্দাসী, গাবসারা ও অর্জুনা ইউনিয়ন এবং নাগরপুর উপজেলার পাইকশা মাঝাইল, আগদিঘুলিয়া, কাজিবাড়ি গ্রাম ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

এএএন/এএসটি

 

ঢাকা: আরও পড়ুন

আরও