মালেশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

মালেশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ২:৩৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৯

মালেশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম

মালেশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এই মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর টাঙ্গাইলে তাদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। প্রিয়জনকে হারিয়ে দিশেহারা পরিবারের সদস্যরা। দুই পরিবারে চলছে আজাহারি। এমনকি এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। নিহত হওয়ার খবরে তাদের বাড়িতে এসে ভিড় করেছেন পাড়া-প্রতিবেশীরা।

নিহতরা হলেন- টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলার মাইনুল (৩১) ও মোহাম্মদ (২৮) আলী।

ধনবাড়ী উপজেলার যদুনাথপুর ইউনিয়নের নলহরা আকন্দবাড়ীর আতাব আলীর ছেলে মোহাম্মদ আলী প্রায় ১ বছর আগে পরিবারের সুখের জন্য একমাত্র সামান্য কিছু আবাদী জমি ছিল সেই জমি বিক্রি ও ঋণ করে প্রায় ৮ লাখ টাকা নিয়ে মালেশিয়ায় যান।

পরিবারের সদস্যরা জানান, ৭ জুলাই রোববার রাতে কোম্পানির কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে জহুর বাহরু জেলার মোয়া থানা এলাকায় রাস্তায় লরির সাথে ধাক্কা লেগে ঘটনাস্থলেই মারা।

নিহত মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী লতা জানান, পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন তিনি, এখন আর উপার্জন করার মতো কেউ রইল না। বিদেশ যাওয়ার সময় নিজেদের আবাদী কিছু জমি বিক্রি এবং আশা, ব্র্যাক, সোসাইটি ফর সোসাল সার্ভিস নামক এনজিও এবং এলাকার বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে চড়া সুদে প্রায় ৮ লাখ টাকা ঋণ করে বিদেশে যান। এখন এতগুলো টাকা কে পরিশোধ করবে। নিহত আলীর স্কুল পড়–য়া দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে। বড় ছেলে সিয়াম নবম ও ছোট ছেলে শিহাব দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে।

নিহত আরেকজন হলেন, একই এলাকার পাথালিয়া গ্রামের হাসমত আলীর ছেলে মাইনুল ইসলাম। মাইনুল প্রায় ১২ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় ফার্নিচার ও ডেকোরেশনের কাজ করতেন। চলতি বছরের মার্চ মাসে তিন মাস ছুটি কাটিয়ে আবারও মালয়েশিয়ায় যান তিনি।

মাইনুলের স্ত্রী নাসরিন জানান, তার স্বামী তাকে হোমিওপ্যাথিক ডাক্তার বানাতে চেয়েছিল, সেই স্বপ্ন আর পূরণ হলো না। স্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে গেল।

নিহতদের লাশ দেশে আনার পর তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে জানা গেছে।

এএএন/আরপি

 

ঢাকা: আরও পড়ুন

আরও