অন্তঃসত্ত্বা ইউএনওকে ওএসডি, তদন্তে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

ঢাকা, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬

অন্তঃসত্ত্বা ইউএনওকে ওএসডি, তদন্তে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ৮:৪৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯

অন্তঃসত্ত্বা ইউএনওকে ওএসডি, তদন্তে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হোসনে আরা বেগম বীণাকে ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) করার ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার জনপ্রশাসন সচিব ফয়েজ আহম্মদকে বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

অন্তঃসত্ত্বা ইউএনও হোসনে আরাকে ওএসডি করার খবর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ হলে তা প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসে। তিনি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত শেষে হোসনে আরাকে ভালো কোথাও বহালেরও নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে, অন্তঃসত্ত্বা হোসনে আরাকে চিন্তামুক্তভাবে বিশ্রামে রাখতে ওএসডি করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (এপিডি) শেখ ইউসুফ হারুন।

হোসনে আরাকে ৪ ফেব্রুয়ারি ওএসডি করা হয়। এ নিয়ে তিনি ৮ ফেব্রুয়ারি রাতে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন।

এতে হোসনে আরা অভিযোগ করেন, সন্তানসম্ভবা হওয়ায় কাজে অযোগ্য দেখিয়ে একজন সিনিয়র কর্মকর্তা তাকে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা থেকে বদলির পায়তারা শুরু করেছিলেন।

অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পরও অত্যন্ত সফলভাবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন জানিয়ে হোসনে আরা লেখেন, ৪ ফেব্রুয়ারি তাকে ওএসডি করার সংবাদ পেয়ে তিনি প্রচণ্ড মানসিক চাপ পান। ২০ এপ্রিল বাচ্চা জন্মের তারিখ নির্ধারিত থাকলেও মানসিক চাপে তার ফুসফুসে রক্ত সঞ্চালন অস্বাভাবিকভাবে কমে যায় এবং বাচ্চার অক্সিজেন সরবরাহ হ্রাস পায়। এ ঘটনায় রাতেই তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন এবং পরদিন সকালে সিজারিয়ান অস্ত্রোপচার করা হয়।

আইএম