স্ত্রীর সঙ্গে মেলামেশার ভিডিও পর্ন সাইটে দিয়ে ধরা স্বামী

ঢাকা, শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১ পৌষ ১৪২৫

স্ত্রীর সঙ্গে মেলামেশার ভিডিও পর্ন সাইটে দিয়ে ধরা স্বামী

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ৯:২৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০১৮

স্ত্রীর সঙ্গে মেলামেশার ভিডিও পর্ন সাইটে দিয়ে ধরা স্বামী

এও কী সম্ভব? স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক পবিত্র। সেটির অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও ধারণ করছেন স্বয়ং স্বামী, গোপনে। শুধু তাই নয়, কতটা বিকৃত রুচির হলে সেটি পর্ন সাইটে ছড়িয়ে দেয়া যায়।

মনকে বিশ্বাস করাতে না পারলেও এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন মিলন গাঙ্গুলি (৩৫)। তিনি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার জামতলা ধোপাপট্টি এলাকার বৃন্দাবন গাঙ্গুলির ছেলে।

অবশেষে স্ত্রী থানায় অভিযোগ দায়ের করলে সোমবার দুপুরে পুলিশ জামতলা থেকে মিলন গাঙ্গুলিকে গ্রেফতার করে।

মিলনের স্ত্রী একই থানার হরিহর পাড়া আমতলা এলাকার বাসিন্দা।

অভিযোগ থেকে জানা গেছে, তিন বছর আগে মিলন গাঙ্গুলির সঙ্গে অভিযোগকারীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ দেখা হয়।

মা ও বোনের প্ররোচণায় মিলন বিভিন্ন সময় স্ত্রীকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন। এ অবস্থায় এক বছর আগে শাশুড়ি, ননদ ও স্বামী মিলে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেন।

এরপরও যৌতুক দাবি করে আসতে থাকেন মিলন। টাকা না দিলে বিভিন্ন সময় গোপনে ধারণ করা স্বামী-স্ত্রীর মেলামেশার ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিতেন তিনি। তবে স্ত্রী বাবার বাড়ি থেকে আর স্বামীর বাড়ি ফিরে যাননি।

বাদীর দাবি, মিলন তাকে বাড়ি ফিরিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। পরে গোপনে ধারণ করা ৭টি ভিডিও একটি পর্ন সাইটে ছড়িয়ে দেয়।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে মিলন গাঙ্গুলি স্বামী-স্ত্রীর মেলামেলার ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার কথা স্বীকার করেছেন। তিনি জানান, ক্ষিপ্ত হয়ে ভিডিওগুলো ছড়িয়ে দিয়েছি। এটা আমার ভুল হয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কদের জানান, মিলন গাঙ্গুলিকে গ্রেফতারের পর তার ল্যাপটপ জব্দ করে, সেখান থেকে ৭টি ভিডিও ক্লিপস উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, পর্ন সাইটে আপলোড করা ভিডিওগুলো মুছে ফেলার চেষ্টা চলছে। মিলন গাঙ্গুলির বিরুদ্ধে তার স্ত্রীর অভিযোগ মামলা হিসেবে নেয়া হয়েছে।

এপি/আইএম