নদীর পাড়ে বসে ফোনে কান্না, পরে লাশ মিললো ২ কিশোরীর

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

নদীর পাড়ে বসে ফোনে কান্না, পরে লাশ মিললো ২ কিশোরীর

সাভার প্রতিনিধি ১০:৫২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৮

নদীর পাড়ে বসে ফোনে কান্না, পরে লাশ মিললো ২ কিশোরীর

ঢাকার সাভারের আশুলিয়ার তুরাগ নদী থেকে এলাকাবাসীর সহায়তায় অজ্ঞাত দুই কিশোরীর ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সন্ধ্যায় আশুলিয়ার বাজার ব্রীজ সংলগ্ন তুরাগ নদী থেকে লাশ দু’টি উদ্ধার করা হয়।

নিহতদের একজনের পড়নে নীল রংয়ের কামিজ ও সাদা পায়জামা। অপরজনের সাদা পায়জামা এবং খয়েরি রংয়ের কামিজ ছিল। দুইজনেরই বয়স ১৫ থেকে ১৬ বছরের মধ্যে।

আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রিজাউল হক বলেন, আশুলিয়া বাজার সংলগ্ন তুরাগ নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় মরদেহ দুটি উদ্ধার করে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ দু’টি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, দুপুরের পরে ওই দুই মেয়েকে নদীর পাড়ে বসে থাকতে দেখেছে অনেকেই। তারা ফোনে কথা বলছিল আর কান্নাকাটি করছিল।

পরে বিকালের দিকে দুই মেয়েকে নদীর পানিতে হাবুডুবু খেতে দেখে দূর থেকে একটি ইটভাটার শ্রমিকরা নৌকা নিয়ে এসে তাদের টেনে তুলে। তবে এর আগেই তারা মারা যায়।

তিনি ধারনা করছেন, অতিরিক্ত পড়ালেখার চাপ অথবা প্রেমঘটিত কারণে তারা দুইজনে একইসাথে পানিতে ডুবে আত্মহত্যা করতে পারে। তবে তাদের পরিচয় জানতে পারলে স্বজনদের সাথে কথা বলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে বলেন ওসি।

এসএ/আরজি