চোলাই মদের সাথে কত টাকা জব্দ?

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ | ২৯ কার্তিক ১৪২৫

চোলাই মদের সাথে কত টাকা জব্দ?

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ৬:২৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০১৮

চোলাই মদের সাথে কত টাকা জব্দ?

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ৭৫ লিটার চোলাই মদ ও নগদ ৫ হাজার ৩০০ টাকাসহ আব্দুস ছামাদ নামে এক মাদক বিক্রেতাকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে আটক ছামাদের স্ত্রীর দাবি, অভিযানের সময় ছামাদের কাছ থেকে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা নিয়েছে পুলিশ।

বুধবার রাত ১১টার দিকে পুলিশের একটি দল ছামাদকে তার ঘর থেকে আটক করে। আটককৃত আব্দুস ছামাদ পৌর এলাকার বাওয়ার কুমারজানী উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত রইজ উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, আব্দুস ছামাদ বাড়িতে চোলাই মদ তৈরি করে বিক্রি করতেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সোহেল কুদ্দুছের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল বুধবার রাত ১১টার দিকে ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় ছামাদের বসতঘর থেকে প্লাস্টিকের ১০টি কন্টেইনার ও সিলভারের দুই পাতিল বোঝাই ৭৫ লিটার চোলাই মদ ও মদ তৈরির সরঞ্জামসহ তাকে আটক করা হয়।

আটকের পর ছামাদকে ছেড়ে দেয়ার শর্তে পুলিশ তার কাছে ১ লাখ টাকা দাবি করে বলে ছামাদের স্ত্রী খোরশেদা বেগম অভিযোগ করেন। পুলিশের শর্তে রাজি হয়ে ছামাদ তার বসতঘরের শোকেসে রাখা টাকা বের করতে গেলে সেখানে থাকা ১ লাখ ৬০ হাজার টাকার পুরোটাই পুলিশ নিয়ে নেয়। পরে পুলিশ রাতেই মদ ও মদ তৈরির সরঞ্জামসহ ছামাদকে থানায় নিয়ে আসে বলে ছামাদের স্ত্রী খোরশেদা বেগম জানিয়েছেন।

তবে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা নেয়ার কথা অস্বীকার করে মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোহেল কুদ্দুছ বলেন, ৭৫ লিটার চোলাই মদ ৫ হাজার ৩০০ টাকা ও মদ তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

কিন্তু ওই অভিযানে অংশ নেয়া মির্জাপুর থানা এএসআই দেলুয়ার অভিযানে ৭৫ লিটার চোলাই মদের সঙ্গে নগদ কত টাকা জব্দ করা হয়েছে তা সাংবাদিকদের জানাতে পারেননি।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ওসি একেএম মিজানুল হক মদ ও মদ তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধারের কথা জানিয়ে বলেন, নগদ ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা নেয়ার কথা তার জানা নেই। 

এএএন/এএল/