টাঙ্গাইলে আ’লীগ নেতাদের উপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ | ৫ শ্রাবণ ১৪২৫

টাঙ্গাইলে আ’লীগ নেতাদের উপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ৬:৫৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৮

print
টাঙ্গাইলে আ’লীগ নেতাদের উপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ৩ আওয়ামী লীগ নেতার উপর হামলার ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার গভীর রাতে টাঙ্গাইলের সখীপুরে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- কালিহাতী পৌরসভার ঝগড়মান এলাকার আমির হামজার ছেলে আরিফুর রহমান শান্ত (২২), আব্দুল মান্নানের ছেলে স্বাধীন (২২) ও দুলাল মিয়ার ছেলে রোমেল (২০)।

তাদের গ্রেফতারের পর কালিহাতী সদর এলাকায় ডাকা বুধবারের আধাবেলা হরতাল প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে কালিহাতী উপজেলা সদরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

অন্যদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে ঘণ্টাব্যাপী উপজেলার বাসস্ট্যান্ড চত্বরে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানববন্ধনে কালিহাতী কলেজ, কালিহাতী আরএস পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, সাটুটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও স্থানীয় একটি মাদ্রাসার কয়েক হাজার ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষক-শিক্ষিকা হামলার প্রতিবাদ করেন। মানববন্ধন থেকে বক্তারা হামলার তীব্র নিন্দা জানান ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এ ব্যাপারে কালিহাতী থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগ নেতাদের উপর হামলার ঘটনায় ৩ জনকে সখীপুর উপজেলা থেকে মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটায় গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার সকালে তাদের কোর্টে চালান করা হয়। অন্যদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চলছে বলে ওসি জানান।

এদিকে উপজেলা শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি ওয়ারেসুল হাসান সিদ্দিকী বলেন, ঘটনার মূল আসামিরা গ্রেফতার হওয়ায় প্রশাসনের অনুরোধে বুধবার সকাল ৬টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ঘোষিত অর্ধদিবস হরতাল প্রত্যাহার করা হয়।

উল্লেখ্য, কালিহাতী উপজেলা সদরের সাতুটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি পরিত্যাক্ত ভবন নিলামে বিক্রি করা হয়। ঠিকাদার ভবনটি ভাঙতে গেলে গ্রেফতারকৃতরা চাঁদা দাবি করেন। পরে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিনের উপস্থিতিতে ভবনটি ভাঙতে গেলে শান্তর নেতৃত্বে কয়েকজন তাদের দেশীয় অস্ত্র নিয়ে কোপায়।

এতে উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, কালিহাতী পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রতন ও পৌর শ্রমিক লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রাইসুল ইসলাম রাসেল গুরুতর আহত হন। আহতরা বর্তমানে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসাপাতালে চিকিসাৎধীন রয়েছেন।

পরে মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কের কালিহাতী বাসস্ট্যান্ডে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এসময় টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা থেকে ঘাটাইল পর্যন্ত প্রায় ২০ কি.মি এলাকায় তীব্র যানযটের সৃষ্টি হয়।

পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তুলে নেয়। শ্রমিকরা হামলার ঘটনায় স্থানীয় সংসদ সদস্য হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারীর সম্পৃক্ততার অভিযোগে বিক্ষোভ করেন। সেই সাথে কালিহাতী থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেন ও সেকেন্ড অফিসার এসআই মেহেদী হাসানের গাফিলতির অভিযোগে প্রত্যাহার দাবি করেন। তাদের সাথে যোগ দেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। 

এএএন/এএল/ 

 
.



আলোচিত সংবাদ