উত্ত্যক্তের মুহূর্ত ফেসবুক লাইভ করার কথা স্বীকার ৪ বখাটের

ঢাকা, বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫

উত্ত্যক্তের মুহূর্ত ফেসবুক লাইভ করার কথা স্বীকার ৪ বখাটের

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ৮:৫৪ অপরাহ্ণ, জুন ১৩, ২০১৮

print
উত্ত্যক্তের মুহূর্ত ফেসবুক লাইভ করার কথা স্বীকার ৪ বখাটের

টাঙ্গাইল শহরের ক্যাপস্যুল মার্কেটের সামনে দিনে-দুপুরে কয়েকজন যুবক মেয়েদেরকে উত্ত্যক্ত করে এবং সেটি ফেসবুকে সরাসরি (লাইভ) প্রচার করার ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

পরে এ ঘটনায় চার বখাটেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। তারা দীর্ঘদিন ধরে শহরের ক্যাপসুল মার্কেটের সামনে মেয়েদের উত্ত্যক্ত করতো।

এ ঘটনায় মূল আসামি রাতুলের কাছ থেকে ব্যবহৃত মোবাইল ফোন জব্দ করা হয় এবং জব্দকৃত মোবাইলের মাধ্যমে তার ফেইসবুক আইডি থেকে বিভিন্ন আপত্তিকর ভিডিওসহ মূল ভিডিওটি উদ্ধার করা হয়।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আরও বলেন, গত রোববার বিকালে শহরের ক্যাপসুল মার্কেটের সামনে কয়েকজন যুবক এক মেয়েকে আপত্তিকর বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল বাক্যবিনিময়ের মাধ্যমে উত্ত্যক্ত করে। এ সময় রাতুল ফেসবুকে লাইভ দেয়।

পরে সেই ভিডিওটি ফেসবুকের কয়েকটি গ্রুপে শেয়ার করে করে এক তরুণী। পরে ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। এরই প্রেক্ষিতে বুধবার সকাল পর্যন্ত টাঙ্গাইল ডিবি পুলিশ শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে ও ঘটনায় দায়ী চারজন বখাটেকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো-  টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বাঘিল ইউনিয়নের বিল মুরিল গ্রামের মফিজুল আলমের ছেলে মূলহূতা তৌহিদ রহমান ইসতিয়াক ওরফে রাতুল (২০), একই এলাকার জাহেদুল আলমের ছেলে রাকিব আলম (২১), লুৎফর রহমানের ছেলে রবিন হাসান (১৯) এবং এনায়েতপুরের এলাকা আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে কাউছার আহমেদ (২৮)।

পুলিশ সুপার বলেন, গ্রেফতারকৃতরা ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা পুলিশের কাছ স্মীকার করেছে। বাকি অভিযুক্তদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত রয়েছে। তারা দীর্ঘদিন যাবত শহরের ক্যাপসুল মার্কেটের সামনে মেয়েদেরকে ইভটিজিং করতো।

তাদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

এএএন/এমএসআই

 
.


আলোচিত সংবাদ