সতীর্থকে চড়-থাপ্পড় মেরে কঠিন শাস্তির মুখে রাজীব

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

সতীর্থকে চড়-থাপ্পড় মেরে কঠিন শাস্তির মুখে রাজীব

পরিবর্তন প্রতিবেদক ২:২৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

সতীর্থকে চড়-থাপ্পড় মেরে কঠিন শাস্তির মুখে রাজীব

গৃহকর্মীকে মেরে জেল খেটেছিলেন জাতীয় দলের সাবেক পেসার শাহাদাত হোসেন রাজীব। এবার তিনি আলোচনায় নতুন কাণ্ড নিয়ে। মাঠে সতীর্থকে পিটিয়ে কঠিন শাস্তি মুখে তিনি।

রাজীবের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, খেলা চলাকালীন এক সতীর্থের ওপর চড়াও হন তিনি। এ ঘটনার রিপোর্ট এরই মধ্যে ম্যাচ রেফারি মারফত পৌঁছে গেছে বোর্ডের কাছেও। তার অপরাধকে ‘লেভেল ৪’ অপরাধ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন ম্যাচ রেফারি।

জাতীয় লিগে শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ঢাকা বিভাগ বনাম খুলনা বিভাগের খেলা চলাকালীন এ কাণ্ড ঘটনা রাজীব।

জানা যায়, ফিল্ডিংয়ের সময় সতীর্থ খেলোয়াড় আরাফাতকে বল ঘষে দেওয়ার জন্য বলেন রাজীব। কিন্তু আরাফাত তা করতে অস্বীকার করলে তার ওপর ক্ষিপ্ত হন রাজীব। মাঠেই আরাফাতকে চড়-থাপ্পড় এমনকি লাথি মারেন রাজীব।

ম্যাচ রেফারি আখতার আহমেদ শিপার বলছেন, ‘রাজীব যা ঘটিয়েছে, সেটা লেভেল ৪ এর আওতায়। এ শাস্তি অনেক কঠিন ও বড়।’

এ ঘটনায় বড় ধরনের শাস্তি পেতে পারেন রাজীব। নিষিদ্ধ হতে পারেন ১ বছরের জন্যও। সরাসরি কারো গায়ে হাত তোলার জন্য এক বছরের নিষেধাজ্ঞার বিধান রয়েছে।

পিএ

 

ক্রিকেট: আরও পড়ুন

আরও