ইনিংস ও ১৩০ রানে হারল বাংলাদেশ

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ইনিংস ও ১৩০ রানে হারল বাংলাদেশ

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:১৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

ইনিংস ও ১৩০ রানে হারল বাংলাদেশ

গতকাল ৩৪৩ রানের লিড পাওয়ার পর আজ আর ব্যাটিংয়ে নামেনি ভারত। ইনিংস ঘোষণা করে দেন বিরাট কোহলি। উদ্দেশ্যে পরিষ্কার। আজকের দিনের মধ্যে বাংলাদেশকে অল আউট করে খেলা শেষ করেও দেওয়া।

সেই উদ্দেশ্যে শতভাগ সফল ভারত অধিনায়ক। আর তাকে সাফল্য এনে দেন ভারতীয় পেসাররা। ভারতের জয়ের মাঝখানে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন মুশফিকুর রহীম। ফলে তাকে এক প্রান্তে অন্যপ্রান্তে ধংসযজ্ঞ চালান উমেশ যাদব-মোহাম্মদ শামিরা।

আজ বাংলাদেশের ইনিংসের একমাত্র গল্প মুশফিকের। একাই লড়ে গেলেন তিনি। আগের ইনিংসে ৩ বার জীবন পেয়েও ব্যর্থ হয়েছিলেন। দ্বিতীয় ইনিংসেও একবার জীবন পান তিনি। এবার সেটাকে কাজে লাগান। ভারতীয় বোলারদের সামনে দারুণ প্রতিরোধ হয়ে দাঁড়ান বাংলাদেশের সাবেক এই অধিনায়ক।

যদিও শেষ রক্ষা হয়নি। এক প্রান্তে সতীর্থদের আসা যাওয়ায় হয়তো মুশফিকও বিচলিত হয়ে পড়েছেন। নামে ক্লান্তি। দলের নবম উইকেট হিসেবে সাজঘরে ফেরেন তিনি। ৫ নম্বরে নেমে ৬৪ রানের এক লড়াকু ইনিংস খেলেন মুশফিক। বল মোকাবেলা করেছেন পাক্কা দেড়শটি।

এই একক লড়াইরে পথে মুশফিক পেয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম ও আবু জায়েদ রাহীকে। এর মধ্যে লিটন ও মিরাজ তাকে কিছুটা সঙ্গ দিতে পেরেছেন। লিটনের সঙ্গে তার জুটিটা ছিল ৬৩ রানের। আর মিরাজের সঙ্গে ৫৯ রানের। বাংলাদেশের ইনিংসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান ৩৮ এসেছে মিরাজের ব্যাট থেকে। লিটন করেছেন ৩৫ রান।

সব মিলিয়ে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংস থেমেছে ২১৩ রানে। দুই ইনিংস মিলিয়েও ভারতের প্রথম ইনিংস থেকে ১৩০ রান কম করেছে বাংলাদেশ। তাতেই ইনিংস ও ১৩০ রানে সিরিজের প্রথম টেস্টটি হারল তারা।

এদিকে টেস্টে দ্বিতীয় ইনিংসে না নামাটা যেন অভ্যাসে পরিণত করেছে ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে গত মাসে দুই টেস্টেই দ্বিতীয় ইনিংসে নামতে হয়নি তাদের। বাংলাদেশের বিপক্ষেও সেই ধারা অব্যাহত থাকল।

ভারত এই শক্তি দেখাতে পারছে তার দুর্দান্ত পেস বোলিং ইউনিটের কল্যাণে। উমেশ যাদব, ইশান্ত শর্মা ও মোহাম্মদ শামির আগুনে পুড়ে ছাই হচ্ছে প্রতিপক্ষ। আজও তার ব্যতিক্রম হয়নি। বাংলাদেশের টপ অর্ডার স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছে ভারতীয় পেসাররা। দ্বিতীয় ইনিংসে শামিই নিয়েছেন ৪ উইকেট। প্রথম ইনিংসের ৩টি মিলিয়ে ম্যাচে নিয়েছেন ৭ উইকেট। উমেশ যাদব নিয়েছেন মোট ৪ (২+২) উইকেট। ইশান্ত ৩ (১+২) ও অশ্বিন নিয়েছেন ৫ (২+৩) উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

টস : বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ (প্রথম ইনিংস) : ১৫০ (৫৮.৩ ওভার) (সাদমান ৬, ইমরুল ৬, মুমিনুল ৩৭, মিঠুন ১৩, মুশফিক ৪৩, মাহমুদউল্লাহ ১০, লিটন ২১, মিরাজ ০, তাইজুল ১, রাহী ৭*, এবাদত ২; ইশান্ত ২/২০, উমেশ ২/৪৭, শামি ৩/২৭, অশ্বিন ২/৪৩, জাদেজা ০/১০)।

ভারত (প্রথম ইনিংস) : ৪৯৩/৬(ডি.) (১১৪ ওভার) (মায়াঙ্ক ২৪৩, রোহিত ৬, পুজারা ৫৪, কোহলি ০, রাহানে ৮৬, জাদেজা ৬০*, সাহা ১২, উমেশ ২৫*; এবাদত ১/১১৫, রাহী ৪/১০৮, তাইজুল ০/১২০, মিরাজ ১/১২৫, মাহমুদউল্লাহ ০/২৪)।

বাংলাদেশ (দ্বিতীয় ইনিংস) : ২১৩ (৬৯.২ ওভার) (সাদমান ৬, ইমরুল ৬, মুমিনুল ৭, মিঠুন ১৮, মুশফিক ৬৪, মাহমুদউল্লাহ ১৫, লিটন ৩৫, মিরাজ ৩৮, তাইজুল ৬, রাহী ৪*, এবাদত ১; ইশান্ত ১/৩১, উমেশ ২/৫১, শামি ৪/৩১, অশ্বিন ৩/৪২, জাদেজা ০/৪৭)।

ফলাফল : ভারত ইনিংস ও ১৩০ রানে জয়ী।

পিএ

 

 

ক্রিকেট: আরও পড়ুন

আরও