ফ্র্যাঞ্চাইজি থাকছে না, বিপিএল হবে বঙ্গবন্ধুর নামে

ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

ফ্র্যাঞ্চাইজি থাকছে না, বিপিএল হবে বঙ্গবন্ধুর নামে

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৫:২৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯

ফ্র্যাঞ্চাইজি থাকছে না, বিপিএল হবে বঙ্গবন্ধুর নামে

এ বছর বিপিএল (বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ) হবে কি হবে না, গত কয়েক দিন ধরেই এ নিয়ে নানা রকম আলোচনাই হচ্ছিল। না হওয়ার শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিলেন, বিপিএল হবে। তবে থাকছে না ফ্র্যাঞ্চাইজি। আলাদা নাম দিয়ে বিপিএল চালাবে বিসিবিই। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, এবারের বিপিএল হবে বঙ্গবন্ধুর নামে। মানে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’।

আজ দুপুরে মিরপুর শেরে বাংলা গণমাধ্যমকর্মীদের সামনে হাজির হয়ে বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন দলগুলোর আগের নামই থাকবে। তবে সবগুলো দলের মালিকানায় থাকবে বিসিবি। মানে দলগুলোর ম্যানেজমেন্টে থাকবে বিসিবি।

ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে বিসিবির ৪ বছরের চুক্তিটা শেষ হয়ে গেছে। নতুন চুক্তির লক্ষ্যে গত মাসে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে ধাপে ধাপে বৈঠক করেছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। প্রতিটা ফ্র্যাঞ্চাইজি তাদের মতামত বিসিবিকে জানিয়েছে।

কী মতামত জানিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো? উত্তরটা শুনুন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের কণ্ঠেই, ‘বিপিএলের প্রথম পর্ব শেষ। নতুন চুক্তি করতে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে বসেছিলাম। কয়েকটা ফ্র্যাঞ্চাইজির বেশ কিছু দাবি-দাওয়া আছে। যে দাবি গুলো আমাদের মূল কাঠানোর সঙ্গে সাংঘর্ষিক। কিছু ফ্র্যাঞ্চাইজি দাবি করেছে, তারা এক বছরে দুটি বিপিএল চায় না। খেলবে না সেটি অবশ্য বলেনি। বলেছে ওদের উপর চাপ পড়বে। কাজেই সবকিছু চিন্তা করে আমরা ঠিক করেছি, এবারের বিপিএল আমরাই (বিসিবি) চালাব। টুর্নামেন্টটা আমরা ফ্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক করছি না। আর টুর্নামেন্টটা আমরা জাতীরজনক বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করছি।’

জাতীয় নির্বাচনের কারণে ২০১৮ সালের বিপিএল অনুষ্ঠিত হয়েছে ২০১৯ সালে। ফলে এই বছরেই আরেকটি বিপিএল খেলতে রাজি ছিল না ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। সমস্যার মূলে ছিল এটাই। তাই বিসিবিই সব দলের মালিক হয়ে টুর্নামেন্টটা আয়োজন করছে। নাজমুল হাসান এটাও নিশ্চিত করেছেন বিপিএল হবে নির্ধারিত সময়েই।

কিন্তু প্রশ্ন হলো সব দলের মালিকানাই যদি বিসিবির হাতে থাকে, তাহলে খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকসহ দলগুলোর খরচ বহন করবে কে? দল ও টুর্নামেন্টের ব্যবস্থাপনাই বা কীভাবে হবে? এই বিষয়গুলোও খোলাসা করেছেন বিসিবি সভাপতি, ‘টুর্নামেন্ট হবে বঙ্গবন্ধুর নামে। সব দলই ঠিক থাকবে। শুধু ম্যানেজমেন্টের দিকটি বিসিবি দেখবে। খেলোয়াড়দের পারিশ্রমকি, ম্যাচ ফি, থাকা-খাওয়া, যাতায়াত-সবই বিসিবি তত্তাবধান করবে। অনেকটা অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাসের মতো। আশা করি, সবাই খুশি হবে।’

তবে কেউ যদি স্পন্সর করতে চায়, সে সুযোগ থাকবে। খেলোয়াড়দের নিলামও আগের মতোই হবে। কোচিং স্টাফসহ দলগুলোর কর্মকর্তাও নিয়োগ দেবে বিসিবি। তবে কোনো কোম্পানি যদি কোনো দলকে স্পন্সর করে এবং তারা তাদের পছন্দ মতো বিদেশি খেলোয়াড় আনতে চায়, আনতে পারবে।

মোদ্দা কথা, ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো দেওয়া শর্ত পূরণ করে অল্প সময়ের মধ্যে টুর্নামেন্ট আয়োজন সম্ভব নয় বলেই বিসিবি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নিজেদের টাকা খরচ করেই টুর্নামেন্ট আয়োজনের ঝুঁকিটা নিচ্ছে।

কেআর

 

ক্রিকেট: আরও পড়ুন

আরও